মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯, ১০:০১ অপরাহ্ন

ইলিয়াসের সন্ধান চেয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবর জেলা বিএনপির স্মারকলিপি

ইলিয়াসের সন্ধান চেয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবর জেলা বিএনপির স্মারকলিপি

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত সিলেট :: বিএনপি নেতা ‘নিখোঁজ’ ইলিয়াস আলীর সন্ধান চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে সিলেট জেলা বিএনপি। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সন্দ্বীপ কুমার সিংহের মাধ্যমে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

ইলিয়াস আলী ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাতে ঢাকার বনানী থেকে গাড়িচালক আনসার আলীসহ ‘নিখোঁজ’ হন। এরপর পেরিয়ে গেছে সাত বছর। তবে তাদের সন্ধান মিলেনি। ইলিয়াস নিখোঁজের সাত বছর পূর্ণ হওয়ার প্রেক্ষিতে তিনদিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ এই স্মারকলিপি দিয়েছে বিএনপি। এর আগে গতকাল বুধবার ছিল দোয়া ও মিলাদ মাহফিল। আগামী ২৯ এপ্রিল হবে আলোচনা সভা।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল বিএনপির তৎকালীন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, সিলেট জেলা শাখার সভাপতি ও সাবেক সাংসদ ইলিয়াস আলী এবং তাঁর গাড়িচালক আনসার আলীকে রাজধানী ঢাকার বনানী এলাকা থেকে গুম করা হয়। একই কায়দায় ২০১২ সালের ৩ এপ্রিল সিলেট জেলা ছাত্রদলের তৎকালীন সহ-সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার আহমদ দিনার ও ছাত্রদল নেতা জুনেদ আহমদকে ঢাকার বনানী এলাকা থেকে গুম করা হয়। ৭ বছর পেরিয়ে গেলেও সরকারের পক্ষ থেকে গুমকৃত নেতাকর্মীদের ফিরিয়ে দেয়ার কার্যকর কোন উদ্যোগ চোখে পড়েনি। দেশের যে কোন নাগরিকের নিরাপত্তা বিধান করার দায়িত্ব সরকারের। দেশের যে কোন নাগরিক গুম হলে তাকে খুজেঁ বের করার দায়িত্ব সরকারের উপরই বর্তায়। কিন্তুইলিয়াস আলীসহ গুমকৃত নেতাকর্মীদের ফিরিয়ে দেয়ার ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে কার্যকর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় আমরা মনে করি গুমকৃত সকলই সরকারের হেফাজতে রয়েছেন।’

অবিলম্বে ইলিয়াস আলী, ছাত্রদল নেতা ইফতেখার আহমদ দিনার, জুনেদ আহমদ ও গাড়িচালক আনসার আলীসহ ‘গুমকৃত সকল নেতাকর্মীদের অক্ষত অবস্থায়’ তাদের পরিবারের কাছে ‘ফিরিয়ে দেওয়ার’ জোর দাবি জানানো হয় স্মারকলিপিতে। একইসাথে ‘ষড়যন্ত্রমূলক’ মামলার রায়ে কারান্তরীণ তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিও জানানো হয়েছে।

স্মারকলিপি প্রদানকালে সিলেট জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল কাহির চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, সহসভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদার, একেএম তারেক কালাম, জেলা বিএনপির উপদষ্টো এডভোকেট এটিএম ফয়েজ, এডভোকেট কামাল মিয়া, জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু, ইশতিয়াক আহমদ সিদ্দিকী, মঈনুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ খান জামাল ও আবুল কাশেম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, জেলা বিএনপির দফতর সম্পাদক এডভোকেট ফখরুল হক, প্রচার সম্পাদক নিজাম উদ্দিন জায়গীরদার, প্রকাশনা সম্পাদক এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট জুবায়ের আহমদ খান, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী সালেহা কবির শেপি, জেলা বিএনপির ধর্ম সম্পাদক আল মামুন খান উপস্থিত ছিলেন।

আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা মাহবুবুল হক চৌধুরী, এম.এ মালেক, দিদার ইবনে তাহের লস্কর, বুরহান উদ্দিন, আব্দুল মালেক, আব্দুল ওয়াহিদ সুহেল, এডভোকেট তাজ উদ্দিন মাখন, এডভোকেট খালেদ জুবায়ের, মাওলানা সাদিকুর রহমান, আমেনা বেগম রুমি, আজির উদ্দিন আহমদ, জাহেদুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, দিলোয়ার হোসেন চৌধুরী, আব্দুল্লাহ আল মামুন সামুন, জিয়াউল হক জিয়া, মঈনুল হক স্বাধীন, হাসান মঈনুদ্দিন, এডভোকেট ইকবাল আহমদ, নজরুল ইসলাম, আফসর খান, শাহেদ আহমদ, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি সুদীপ জ্যোতি এষ, যুবদল নেতা এম. এহসানুল করিম মিশু, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক সুহেল ইবনে রাজা, ছাত্রদল নেতা মাসুম পারভেজ, আব্দুল মুকিত, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আজিজ খান সজীব, রাসেল খান, ফারুক আহমদ, মাসুম আহমদ লস্কর, এডভোকেট আব্দুল্লাহ আল হেলাল, হাবিবুর রহমান, আব্দুল আহাদ রানা, ছাত্রদল নেতা মকসুদুল করিম, এহসান রেজা, সামসুদ্দিন শুভ, লিমন আহমদ ও মনসুর খান প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ