বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৪:৫৫ অপরাহ্ন

খালেদা জিয়াকে হত্যার ষড়যন্ত্র হচ্ছে : ফখরুল

খালেদা জিয়াকে হত্যার ষড়যন্ত্র হচ্ছে : ফখরুল

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক:বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, কারাবন্দি দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কোনো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। তাকে সুপরিকল্পিতভাবে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। এর দায় কারা কর্তৃপক্ষ ও সরকারকে বহন করতে হবে। দাবি একটাই, অবিলম্বে এই মুহূর্তে দেশনেত্রীকে সুচিকিৎসার জন্য তার পছন্দের হাসপাতালে স্থানান্তর করা হোক। তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা হোক।

বুধবার রাজধানীতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের ব্যাপারে দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে, কারা কর্তৃপক্ষ সম্পূর্ণ উদাসীন। মঙ্গলবার দেশনেত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তার পরিবারের সদস্যরা। তারা বলেছেন, তিনি (খালেদা জিয়া) আরও অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। আমি কোর্টে দেখেছি তিনি মাথা সোজা ও পা বাঁকা করে রাখতে পারছিলেন না।

মির্জা ফখরুল বলেন, তিনি এতোটাই অসুস্থ যে এখন তিনি কারা কক্ষেও চলাচল করতে পারছেন না। তাকে সবসময়ই সাহায্য নিতে হচ্ছে। প্রতিটি ক্ষণ তাকে সীমাহীন যন্ত্রণার মধ্যে পার করতে হচ্ছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, হাইকোর্টের আদেশে গত অক্টোবরে দেশনেত্রীকে বিএসএমএমইউতে আনা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসা না দিয়ে তাকে ৮ নভেম্বর মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকদের অনুমতি ছাড়াই কারাগারে ফিরিয়ে নেয়া হয়। সেই থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সাড়ে ৩ মাস তার কোনো শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়নি। যে অসুখগুলো তার রয়েছে প্রতিদিন তা মনিটর করা দরকার, স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা দরকার- তার কোনো কিছুই করা হয়নি।

২৪ ফেব্রুয়ারি আদালতের নির্দেশে মেডিকেল বোর্ড কারাগারে খালেদা জিয়াকে দেখে আসার পর যে প্রতিবেদন দেয় তা পড়ে শুনিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, আপনারা শুনলে অবাক হবেন- মেডিকেল বোর্ডের রিপোর্ট দেয়ার পরে বলা হল যে, তার রক্ত পরীক্ষা করতে হবে জরুরিভাবে। তারা (মেডিকেল বোর্ড) কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। অনেক বলা-কওয়ার পর ১৯ মার্চ তার রক্ত নেয়ার জন্য কারাগারে লোক পাঠানো হল। রক্ত নিয়ে আসা হল বিএসএমএমইউতে পরীক্ষা করতে। এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে তারা বোর্ডের মিটিং করেননি। এই রক্তের ফলাফল নিয়ে কোনো কথা বলেননি। দেশনেত্রীর সঙ্গে কারা কর্তৃপক্ষের ও মেডিকেল বোর্ডের কেউ দেখা পর্যন্ত করতে যায়নি।

তিনি বলেন, একটা বর্বর সমাজেও অসুস্থদের প্রতি মানবিক আচরণ করা হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে তিনিসহ স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সাক্ষাতের পরও খালেদা জিয়াকে বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার উদ্যোগ কর্তৃপক্ষ নেয়নি বলেও উদ্বেগ প্রকাশ করেন ফখরুল।

এছাড়া ৪ দিন আগে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক ঢাকা মহানগর উত্তরের নেতা রবিউল আউয়ালকে তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনার নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তাকে জনসমক্ষে হাজির করার দাবিও জানান বিএনপি মহাসচিব। একই সঙ্গে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে স্থানীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর কুষ্টিয়া জেলা নেতাদের গ্রেফতার ও ফরিদপুরে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসী কর্তৃক জেলা নেতাদের ওপর হামলার ঘটনার নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিও জানান মির্জা ফখরুল।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ফরহাদ হালিম ডোনার, অধ্যাপক সিরাজউদ্দিন আহমেদ, অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ