বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন

গোলাপগঞ্জে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

গোলাপগঞ্জে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

নিউজটি শেয়ার করুন

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি: গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর শেখপুর এলাকায় রুহেনা আক্তার (২৭) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ভোরে সিলেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত রুহেনা উপজেলার ভাদেশ্বর শেখপুর গ্রামের আজাদ আহমদের স্ত্রী। তিনি ২ সন্তানের জননী।

নিহত রুহেনার ভাই ফয়ছল আহমেদ অভিযোগ করে জানান, রুহেনার স্বামী প্রবাসী। সপ্তাহখানেক আগে শ্বাশুড়ি বৈতরূন বেগম, দেবর ফখরুল ইসলাম, আনকার আহমদ ও ভাসুরের ছেলে আজিজুর রহমান রুহেনাকে পিটিয়ে অজ্ঞান অবস্থায় একটি ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন। খবর পেয়ে পরদিন পরিবারের লোকজন শেখপুর গ্রামে গিয়ে রুহেনাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানি হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসার অবস্থার অবনতি হওয়ায় বুধবার তাকে সিলেটের ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে শুক্রবার ভোরে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও অভিযোগ করেন, এরপর ঘটনা দামাচাপা দিয়ে নিহতের শ্বশুর বাড়ির লোকজন সকালে হাসপাতাল থেকে লাশ বাড়িতে এনে তড়িঘড়ি করে দাফনের চেষ্টা করে। পরে রুহেনাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ করে স্বজনরা স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে লাশ দাফনে বাঁধা দেন। খবর পেয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি (তদন্ত) দীলিপ কুমার নাথসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ঘটনায় গোলাপগঞ্জ থানায় হত্যামামলা দায়েরের প্রস্তুতি চললে বলেও জানান ফয়ছল আহমদ।

বাদেপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুস্তাক আহমদ বলেন, রুহেনা আক্তার ইউনিয়নের বাদেপাশা গ্রামের মৃত ছরকুম আলীর মেয়ে। তারা অত্যন্ত দরিদ্র ও নিরীহ প্রকৃতির লোক। তার মৃত্যুর খবরে আমি নিজেও মর্মাহত। আমি এ ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

গোলাপগঞ্জ থানার ওসি একেএম ফজলুল হক শিবলী বলেন, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ