রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ১২:৫৬ অপরাহ্ন

চিকিৎসার নামে খালেদা জিয়াকে ‘বিষ প্রয়োগ’ করা হচ্ছে কিনা শঙ্কা রিজভীর

চিকিৎসার নামে খালেদা জিয়াকে ‘বিষ প্রয়োগ’ করা হচ্ছে কিনা শঙ্কা রিজভীর

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক:চিকিৎসার নামে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে স্লো পয়জনিং (ধীরে ধীরে বিষ প্রয়োগ) করা হচ্ছে কিনা তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শবে মিরাজ উপলক্ষে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলে তিনি এ আশঙ্কার কথা বলেন।

রিজভী বলেন, সুস্থ অবস্থায় খালেদা জিয়া কারাগারে গিয়েছিলেন। কিন্তু বর্তমানে তিনি মারাত্মক অসুস্থ, তাকে হুইলচেয়ার ব্যবহার করতে হচ্ছে। আমাদের ভয় হচ্ছে সরকার কারাগারের মধ্যে তাকে চিকিৎসার নামে অন্য কিছু করছে কিনা? তাকে স্লো পয়জনিং করা হচ্ছে কিনা তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে- তিনি গুরুতর অসুস্থ হলেন কীভাবে?

তিনি বলেন, বেগম জিয়ার কোনো উন্নত চিকিৎসা নেই। বেগম জিয়াকে সুচিকিৎসার বন্দোবস্ত করার এতবার দাবি করা হয়েছে। একজন মানুষকে মৃত্যুর মুখোমুখি ঠেলে দিয়েও দেশের ডাক্তাররা নিজেদের পদ ধরে রাখার জন্য শেখ হাসিনার ভাষায় কথা বলছেন।

কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়াই চিকিৎসকরা খালেদা জিয়াকে সুস্থ দাবি করছেন বলেও অভিযোগ করেন বিএনপির এ নেতা। তিনি বলেন, ডাক্তাররা তাদের পদ টিকিয়ে রাখতে খালেদা জিয়ার অবস্থা স্থিতিশীল বলে বিবৃতি দিচ্ছেন।

এ সময় খালেদা জিয়া এখনও গুরুতর অসুস্থ বলেও দাবি করেন রিজভী।

গত সোমবার কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ভর্তি করা হয়েছে।

এদিন দুপুর ১২টা ৪১ মিনিটে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে তাকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়। পরে হুইলচেয়ারে করে বিএনপি চেয়ারপারসনকে কেবিন ব্লকের পাঁচতলায় নেয়া হয়। হাসপাতালে তার জন্য ৬২১-৬২২ নম্বর কেবিন বরাদ্দ রয়েছে।

গত এক বছরের বেশি সময় ধরে দুর্নীতি মামলায় পুরান ঢাকার সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে বিশেষ সেলে বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া। এর আগেও তিনি বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা নিয়েছেন।

রিজভী বলেন, একটি আধুনিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে আইন, বিচার এবং নির্বাহী বিভাগের মধ্যে ক্ষমতার ভারসাম্য আছে। তবে বাংলাদেশে এ ভারসাম্য ভেঙে দিয়েছেন শেখ হাসিনা। তিনি এগুলো কিছুই মানেন না। কারণ তিনি হচ্ছেন সুপ্রিমকোর্টের চিফ জাস্টিসের চাইতেও মহাচিফ জাস্টিস। তাকে যারা ক্ষমতায় রেখেছেন যারা মিডনাইট নির্বাচন করিয়ে দিয়েছেন, যারা মধ্যরাতে নির্বাচনে আবারও ক্ষমতা এনেছেন তাদের ক্ষমতা অপরিসীম।’

খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের প্রতীক উল্লেখ করে রিজভী বলেন, তার জীবন নিয়ে টানাহেঁচড়া হচ্ছে। তাকে উন্নত চিকিৎসা দিতে অনেক দাবি অনেক সংগ্রাম করা হয়েছে, কিন্তু তিনি সেটা পাবেন না। শেখ হাসিনা যা পাবেন খালেদা জিয়া সেটা পাবেন না। কারণ শেখ হাসিনা দেশটাকে জমিদারি তালুক মনে করেন।

জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের পরিচালনায় দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক হাফেজ নেছারুল হক প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ