সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুরের মা-বাবা সহ ‘জ্বিনের বাদশা’ গ্রেপ্তার

জগন্নাথপুরের মা-বাবা সহ ‘জ্বিনের বাদশা’ গ্রেপ্তার

নিউজটি শেয়ার করুন

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা সদর বাজারের এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ‘জ্বীনের বাদশা’ পরিচয়ে ১৫শ কোটি টাকা দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সাড়ে তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে তিনজনকে নেত্রকোনা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, হাফিজ কামরুল ইসলাম, তার বাবা আব্দুল কাদির ও মা রেনু বেগম।

আজ শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বিকেলে গ্রেপ্তারকৃতদের সুনামগঞ্জ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জগন্নাথপুর থানা পুলিশ জানায়, জগন্নাথপুর বাজারের হোটেল ও স্যানিটারি মালামাল বিক্রেতা মাওলানা এমরান আহমদে সাথে ২০১৮ সালে জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর গ্রামের এনামুল হাসানের মাধ্যমে পরিচয় হয় নেত্রকোনা জেলার কালিয়াজুরি উপজেলার দাউদপুর গ্রামের হাফিজ কামরুল ইসলামের। কামরুল ইসলাম সৈয়দপুর গ্রামের লন্ডন প্রবাসী রহমত আলীর বাড়িতে ভাড়াটে হিসেবে বসবাস করতেন।

মাওলানা এমরান আহমদ জানান, কামরুল ইসলাম জ্বীনের সাথে তার সুসম্পর্ক রয়েছে বলে জানান। আরো জানান যে তার ঘরে বিভিন্ন ড্রামে ১৫শ কোটি টাকা রয়েছে। ওই টাকা নিতে হলে জ্বিনের জন্য শিরনী হিসেবে সাড়ে তিন কোটি টাকা দিতে হবে বলে জানান কামরুল। এভাবে ফাঁদে ফেলে ১৫শ কোটি টাকা দেয়ার কথা বলে বিভিন্ন কিস্তিতে সাড়ে তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নেন তিনি। পরে এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন এমরান আহমদ।

জগন্নাথপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান জানান, ব্যবসায়ী এমরান আহমদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার কুট বটতল গ্রামে অভিযান চালিয়ে হাফিজ কামরুল ইসলাম, তার বাবা আব্দুল কাদির ও মা রেনু বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জগন্নাথপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নব গোপাল দাস বলেন, পুলিশ ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছে। এ ঘটনায় ৬টি ড্রাম উদ্বার করেছে পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ