সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দিনব্যাপী পৃথক কর্মশালা

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দিনব্যাপী পৃথক কর্মশালা

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত সিলেট:: প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমেদ বলেছেন, তথ্য অধিকার আইণ একটি উত্তম আইণ। এ আইণের মাধ্যমেই নারীর অধিকার নিশ্চিত করা সম্ভব।

সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার মহিলা ফুটবল টিমের কথা উল্লেখ করে মরতুজা আহমেদ বলেন, মানুষের আচরণগত পরিবর্তনের কারনেই আমাদের মেয়েরা এখন ফুটবল খেলছে, যা কিছুদিন আগেও কল্পনা করা যেতনা। সম্পত্তিতে নারীর পূর্ণ অধিকারের বিষয়টি খুবই জরুরী বলেও মন্তব্য করেন তিনি। ইউএসএআইডির অর্থায়নে তথ্য প্রাপ্তির অধিকারে নারীর অগ্রগতি প্রকল্পের আওতায় সিলেটের জেলা প্রশাসন ও দি কার্টার সেন্টারের যৌথ উদ্যোগে এবং জেলা ও উপজেলার অধিকার বাস্তবায়নে অবেক্ষণ ও পরিবীক্ষণ কমিটির সদস্যদেও নিয়ে আয়োজিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, কার্টার সেন্টার যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে তা খুবই দরকারী।

এ জন্য তিনি জেলা প্রশাসনসহ আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। মঙ্গলবার সিলেটের জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্টানে সভাপতিত্ব করেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।

অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের সিভিল সার্জন ডাঃ হিমাংশু লাল রায় ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুল আলম। এছাড়া সিলেটের সকল উপজেলা নির্বাহী অফিসার, দি কার্টার সেন্টার কর্তৃক বাস্তবায়িত প্রকল্পের চিফ অব পাটি সুমনা সুলতানা মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন। সিলেটের জেলা প্রশাসক সবাইকে অবহিত করেন যে, সিলেট জেলায় সবগুলো অবেক্ষণ ও পরিবীক্ষণ কমিটি গঠন করা হয়েছে। কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীরা তথ্য প্রাপ্তিতে নারীর বাঁধা, এ বিষয়ের উপর ক্ষুদ্র বার্তা তৈরি করেন।

এদিকে বিকেলে একই স্থানে তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এনজিও কর্মকর্তাদের রিফ্রেসার্স কোর্স জেলা প্রসাশন ও তথ্য অধিকার বাস্তবায়নে অবেক্ষণ ও পরিবীক্ষণ জেলা কমিটির উদ্যোগে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন,আইডিয়া এবং দ্যা কার্টার সেন্টার এর ‘এডভান্সিং উইমেন’স রাইট অব একসেস টু ইনফরমেশন ইন বাংলাদেশ’ প্রকল্পের সহায়তায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে তথ্য অধিকার বিষয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এনজিও কর্মকর্তাদের রিফ্রেসার্স কোস অনুষ্ঠিত হয়।

রিফ্রেসার্স প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং মানবাধিকার,সুশাসন এবং তথ্য অধিকার বিষয়ে সেশন পরিচালনা করেন বাংলাদেশ তথ্য কমিশনের প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং তথ্য অধিকার আইনের জীবনমান ও সেবার মান উন্নয়নে তথ্যে প্রভাব ও গুরুত্ব সেশন পরিচালনা করেন সিলেট জেলার জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসালাম। তথ্য অধিকার আইনের প্রয়োগ বিষয়ে গুরুত্বপুর্ন সেশন পরিচালনা করেন তথ্য অফিস সিলেটের উপ পরিচালক জুলিয়া যেসমীন মিলি।

সভায় তথ্য অধিকার বিষয়ে আরো সচেতনতা বৃদ্ধি কোন সংস্থার পক্ষে এককভাবে সম্ভব নয় বিধায় সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় জনগনের দোরগোরায় নিয়ে যেতে হবে এবং আরটিআই এর চর্চা বিষযে তৃর্ণমুল পর্যায়ের নারীদের সম্পৃক্ত করতে হবে। বিষয়টি সকলকে জানাতে হবে এবং এর সঠিক প্রয়োগ ও চর্চার মাধ্যমে নারীর তথ্যে প্রবেশাধীকার নিশ্চিত করার বিষয়ে বক্তাগণ গুরুত্ব আরোপ করেন। মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন ও তার সহযোগী সংগঠনের মাধ্যমে এই প্রকল্পের কার্যক্রম ঢাকা , সিলেট ও খাগড়াছড়ি জেলায় বাস্তবায়িত হচ্ছে। এই অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলার সকল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাবৃন্দ, সিলেটে কর্মকর্ত ২৫ টি এনজিওর প্রতিনিধিবৃন্দ প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ