শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:০০ পূর্বাহ্ন

টিকে যাচ্ছেন রাহি

টিকে যাচ্ছেন রাহি

নিউজটি শেয়ার করুন

স্পোর্টস ডেস্ক:বিশ্বকাপে শেষ পর্যন্ত রাহি না তাসকিন যাবেন- এ নিয়ে ধোঁয়াশা এখনও পুরোপুরি কাটেনি। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও এ নিয়ে একটু রহস্য রেখে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ফিট থাকলে তাসকিনের সম্ভাবনা আছে, তবে রাহিকে সুযোগ না দিয়ে বাদ দেওয়ার পক্ষেও নন তিনি।

বোর্ড সভাপতির বার্তা পেয়েই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে গত ম্যাচে রাহিকে সুযোগ দেওয়া হয় চোটাক্রান্ত সাইফউদ্দিনের জায়গায়। যদিও নিজের ওয়ানডে অভিষেক রাঙাতে পারেননি রাহি। ৯ ওভারে ৫৬ রান দিয়ে উইকেটশূন্য ছিলেন। এর পরও টিম ম্যানেজমেন্ট তার ওপর আস্থা রাখছে। ডাবলিন থেকে ম্যানেজার মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানান, আজ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষেও খেলবেন এই সুইং বোলার।

বিশ্বকাপের ১৫ জনের স্কোয়াডে একমাত্র চমক ছিলেন আবু জায়েদ রাহি। প্রধান কোচ স্টিভ রোডসের পছন্দে পঞ্চম বোলার হিসেবে নেওয়া হয়েছে তাকে। ইনজুরি ছাড়া বিশ্বকাপ স্কোয়াডে পরিবর্তন না করার পক্ষে ছিল জাতীয় দল নির্বাচক প্যানেল। এদিক থেকে ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষেই দেশে ফেরার কথা তাসকিনের। অথচ হঠাৎ করেই খবর রটে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রাহির জায়গায় নেওয়া হচ্ছে তাকে। বিসিবি সভাপতি জানান, ইংল্যান্ডের কন্ডিশন মাথায় রেখে তাসকিনকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। পাপন সংবাদ সম্মেলনে ডেকে রাহি ও তাসকিনের ব্যাপারে একটা ব্যাখ্যাও দেন। দুই পেসারকে নিয়ে এই লুকোচুরির প্রভাব জাতীয় দলেও পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

তবে জল বেশি দূর গড়ানোর আগেই অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা পরিস্থিতি সামাল দেন। রাহিকে বিশ্বকাপের ১৫ জনের স্কোয়াডে রাখার নিশ্চয়তাও দেওয়া হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে। আয়ারল্যান্ড থেকে নির্ভরযোগ্য একটি সূত্রে জানা গেছে, তাসকিনকে ইংল্যান্ডে নিয়ে যাওয়া হলে বিকল্প হিসেবে দলের ১৬তম সদস্য হবেন। অবশ্য তাসকিন নিশ্চিত বিশ্বকাপ ভাবনায় থাকলে ত্রিদেশীয় সিরিজে একাধিক ম্যাচে খেলার সুযোগ দেওয়া হতো। অথচ এখন পর্যন্ত এক প্রস্তুতি ম্যাচেই আটকে আছে তার খেলা। নান্নু জানান, আজ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষেও তাসকিনের খেলার সম্ভাবনা দেখেন না তিনি। বরং এ ম্যাচে যে তিনটি পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা আছে, তাতে বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সদস্যরাই খেলবেন।

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের আগে মুস্তাফিজ, সৌম্য ও মিরাজকে বিশ্রাম দেওয়ার কথা ভাবছেন প্রধান কোচ স্টিভ রোডস। তাদের মধ্যে টানা দুই ম্যাচের হাফ সেঞ্চুরিয়ান সৌম্যর ছোটখাটো চোট আছে। বিশ্রাম তার প্রয়োজনও। ফলে মুস্তাফিজের জায়গায় রুবেল হোসেন, সৌম্যর পরিবর্তে লিটন কুমার দাস ও মিরাজের বদলে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত খেলতে পারেন। এই তিনজনের কেউই এখন পর্যন্ত ত্রিদেশীয় সিরিজে ম্যাচ খেলেননি। আজ বিশ্রাম নিতে পারেন অধিনায়ক মাশরাফিও। সেক্ষেত্রে শেষ মুহূর্তে সুযোগ আসতে পারে তাসকিনের।

চোট থেকে পুরোপুরি সেরে ওঠার জন্যই রুবেলকে বিশ্রামে রাখা হয়েছিল। আর বাকি দু’জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত তারা খেলতে পারলেও ভাগ্যের শিকে ছিঁড়ছে না ত্রিদেশীয় সিরিজের ১৯ জনের স্কোয়াডে থাকা স্পিনার নাঈম হাসান, পেস বোলিং অলরাউন্ডার ফরহাদ রেজা, উদীয়মান মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ইয়াসির আলী রাব্বি ও ফাস্ট বোলার তাসকিনের। কোনো ম্যাচ না খেলেই দেশে ফিরতে হতে পারে এই চারজনকে।

অথচ দেশ ছাড়ার আগে টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে বলা হয়েছিল পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্যই স্কোয়াডে চারজন অতিরিক্ত ক্রিকেটার যুক্ত করা হয়েছে। ত্রিদেশীয় সিরিজে তাদের ম্যাচ খেলার সুযোগ দেওয়া কথাও জানিয়েছিলেন তারা। আয়ারল্যান্ড সফরের শেষদিকে এসে বোঝা যাচ্ছে অতিরিক্ত চারজনকেই নেটের বোলার ও ব্যাটসম্যান হিসেবে স্কোয়াডে নেওয়া হয়েছে। যা-ই হোক, দেশে ফেরার পর এই ক্রিকেটারদের ছুড়ে না ফেললেই হয়। কারণ ২০০৯ সালে শামসুর রহমান শুভ ও মোহাম্মদ মিঠুনের সঙ্গে এমন ঘটনাই ঘটেছিল। ইংল্যান্ড টি২০ বিশ্বকাপের পর দেশে ফিরে এই দু’জনকেই জাতীয় দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ