বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০১:৩৯ অপরাহ্ন

তারেকের ব্যবসায়ী বন্ধু মামুনের সাত বছরের কারাদণ্ড

তারেকের ব্যবসায়ী বন্ধু মামুনের সাত বছরের কারাদণ্ড

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক : অর্থপাচার মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুনকে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া তাকে ১২ কোটি টাকা অর্থদণ্ডও দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন এ রায় প্রদান করেন।

সিঙ্গাপুরে অর্থপাচারের অভিযোগে অন্য একটি মামলায় ইতোমধ্যে গিয়াস উদ্দিন আল মামুনকে ৭ বছরের কারাদণ্ড ও ৪০ কোটি টাকার জরিমানা করা হয়েছে।

এ মামলা চলাকালীন সময়ে ২০১৩ সালের ৩০ অক্টোবর থেকে আদালতের আদেশে মামুনের লন্ডনের ন্যাটওয়েস্ট ব্যাংকের ২টি হিসাবে থাকা ৬ কোটি টাকা জব্দ রয়েছে।

২০১১ সালের ২২ সেপ্টেম্বর দুদকের উপ পরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিম ক্যান্টনমেন্ট থানায় এ মামলা দায়ের করেন। ২০১১ সালের ৩১ ডিসেম্বর মামুনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন আদালত।

মামলায় বলা হয়, বিটিএল ও গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালের চেয়ারম্যান এম শাহজাদ আলী রেলওয়ের সিগন্যালিং আধুনিকীকরণের কাজ পান। কিন্তু কার্যাদেশ চূড়ান্ত করার সময় মামুন তার কাছে অবৈধ কমিশন দাবি করেন। না হলে কার্যাদেশ বাতিল করার হুমকি দেন। পরে ২০০৩ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে মামুন তার কাছ থেকে আদায় করা ৬ কোটি ১ লাখ ৫৭ হাজার ৭৬২ টাকার কমিশন কয়েক দফায় বাংলাদেশ থেকে লন্ডনের ন্যাটওয়েস্ট ব্যাংকে পাচার করেন। ন্যাটওয়েস্ট ব্যাংকের এলডুইচ দুইটি হিসাবে মামুনের ওই টাকা (২ লাখ ৪ হাজার ৪৯৬ দশমিক ৬৯ পাউন্ড স্টারলিং) জমা থাকা অবস্থায় হিসাব দু’টি জব্দ আছে।

বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে ২০০৭ সালের ৩০ জানুয়ারি যৌথবাহিনীর হাতে গ্রেফতার হন মামুন। এরপর তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, দুর্নীতি, অর্থপাচার, করফাঁকিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ২০টিরও বেশি মামলা হয়। সেই থেকে তিনি কারাগারে আটক আছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ