মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন

ধর্মপাশায় দ্বিতীয় দিনে ‘আনন্দ স্কুলের’ ২০ ভুয়া পরিক্ষার্থী শনাক্ত 

ধর্মপাশায় দ্বিতীয় দিনে ‘আনন্দ স্কুলের’ ২০ ভুয়া পরিক্ষার্থী শনাক্ত 

নিউজটি শেয়ার করুন

ধর্মপাশা  প্রতিনিধি :সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ‘আনন্দ স্কুলের’ ২০ জন ভূয়া পরীক্ষার্থীকে শনাক্ত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। সোমবার দ্বিতীয় দিনের পরীক্ষা চলাকালে এসব ভূয়া পরীক্ষাদের শনাক্ত করা হয়।
জানা যায়, উপজেলার রিচিং আউট অব স্কুল চিলড্রেন (রস্ক) প্রকল্পের আনন্দ স্কুলের পরীক্ষার্থীদের বদলে ধর্মপাশা জনতা মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও সেলবরষ ইউনিয়নের সৈয়দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষার প্রথম দিন থেকেই বহিরাগত শিক্ষার্থীদের দিয়ে পরীক্ষা দেওয়ানো হচ্ছে। এমন খবরের ভিত্তিতে সোমাবর দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান পরীক্ষা চলাকালে দুটি কেন্দ্রের দায়িত্বরত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের আনন্দ স্কুলের পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র জব্দ করার নির্দেশ দেন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পৃথক পৃথকভাবে দুটি কেন্দ্রে গিয়ে জব্দকৃত প্রবেশপত্র যাচাই বাছাই করে ফাতেমানগর আনন্দ স্কুলের ৭জন, আতকাপাড়া আনন্দ স্কুলের ২ জন, ধর্মপাশা উত্তরপাড়া আনন্দ স্কুলের ১জন ও মাটিকাটা আনন্দ স্কুলের ১০ জনসহ মোট ২০ জন ভূয়া পরীক্ষার্থীকে শনাক্ত করেন। শিক্ষার্থীরা জানায়, সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় থেকে তাদেরকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য জনপ্রতি ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা করে পরিশোধ করা হবে জানানো হয়েছিল। প্রথম পরীক্ষার দিন অনেকেই ১০০ টাকা করে পেয়েছিল বলে জানায় তারা।
রিচিং আউট অব স্কুল চিলড্রেন (রস্ক) প্রকল্পের ট্রেনিং কোঅর্ডিনেটর (টিসি) সোহেলী আক্তার তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, ভূয়া পরীক্ষার্থী শনাক্ত করার বিষয়টি তিনি শুনেছেন। কোনো প্রকার অনিয়মের সাথে তাঁর কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলেও জানান তিনি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান বলেন, ‘এ ব্যাপারে টিসি, অভিযুক্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ