মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন

‘ধানের’ দাম নেই, তাই ঈদবাজারে ক্রেতাও নেই

‘ধানের’ দাম নেই, তাই ঈদবাজারে ক্রেতাও নেই

নিউজটি শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রায় সপ্তাহ পেরোলেই পুরো দেশ মেতে উঠবে ঈদ আনন্দ। নানা শ্রেণী পেশার মানুষজন এই শ্রোতে ভাসলেও সারা দেশের ন্যায় সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় ধানের মূল্য কম হওয়ায় উপজেলার কৃষক পরিবারের ঈদ আনন্দ ম্লান হয়ে গেছে। চরম অর্থকষ্টে দিন কাটছে উপজেলার কৃষকদের।

জানা যায়, উপজেলা জুড়ে অর্থাভাবে বেশিরভাগ পরিবারেই এখনো কেনা হয়নি নতুন জামাকাপড়। কোন কোন পরিবার বিভিন্ন দোকানের ঋণ পরিশোধ করতে কিছু পরিমাণ ধান বিক্রি করে কোন রকমে চাহিদা মেটাচ্ছেন। ফলে উপজেলার কৃষকসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে ঈদ নিয়ে নেই বাড়তি কোন উচ্ছ্বাস। ধানের মূল্য কম হওয়ায় উপজেলার কৃষি পরিবারের বেশির ভাগই এবার বঞ্চিত হবেন ঈদ আনন্দ থেকে। ক্রেতা শূণ্য জগন্নাথপুর উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারের দোকান-পাট।

উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারগুলোতে এ সময়ে বিক্রয় হলেও এ বছর অন্য দৃশ্য। ঈদের বর্ণিল সাজে দোকানগুলো সাজলেও ক্রেতা কম। কারণ একটাই ধানের মূল্য কম। রোদ পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে কৃষকেরা দুই বেলা দুই মুঠো ভাতের জন্য পরিবার বাঁচাতে যাদের সর্বক্ষণিক দৌড়ঝাঁপ ঈদ বাজারের দিকে তারা কি আর খেয়াল রাখবে। ঈদ এলেও তারা এখন চরম অসহায়। একদিকে হাতে নেই টাকা। তাদের ছেলে-মেয়েরা ঈদের নতুন জামা কাপড়ের আবদার করলে তারা শুধুই আফসোস করছেন।

উপজেলার গন্ধবর্ক্ষপুর গ্রামের এখলাছুর রহমান আখলাই বলেন, কঠোর পরিশ্রম করে এবারে তিনি ২৫শতাংশ জমিতে বোরো চাষ করেছিলেন। এবার আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ফলনও বাম্পার হয়েছে।
আর মাত্র কয়েকদিন পর ঈদ। ঈদ আসার আগেই ধান ঘরে আসার মহাখুশি হয়েছিলেন তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা।

কিন্তু সেই ধান ঘরে উঠার আগেই ধানের বাজার মুল্যের দরপতন হওয়ায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি। সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানিয়ে কৃষকেরা বলেন, ধানের দাম বৃদ্ধি করে স্বাভাবিক জীবন পরিচালনা করতে সহযোগিতা করবেন এটা আমাদের প্রত্যাশা বর্তমান সরকারের কাছে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ