বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

নারীদের অপমানের প্রমাণ দিতে পারলে ফাঁসিতে ঝুলে যাব : গম্ভীর

নারীদের অপমানের প্রমাণ দিতে পারলে ফাঁসিতে ঝুলে যাব : গম্ভীর

নিউজটি শেয়ার করুন

স্পোর্টস ডেস্ক:চলতি লোকসভা নির্বাচনকে ঘিরে নয়াদিল্লির রাজনীতিতে নতুন মুখরোচক ইস্যু হিসেবে আবির্ভুত হয়েছে ‘প্রচারপত্র স্ক্যান্ডাল’। যা প্রতিনিয়ত নিচ্ছে নতুন নতুন মোড়। যে ঘটনার মূল হোতা হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়েছে বিজেপি থেকে নির্বাচনে অংশ নেয়া ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক গৌতম গম্ভীরকে।

বিজেপির প্রতিপক্ষ আম আদমি পার্টির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে গম্ভীর তার নির্বাচনী প্রচারপত্রে আম আদমি পার্টির নারী প্রার্থী অতিশির বিরুদ্ধে অপমানজনক কথা বলেছেন। পরে আনুষ্ঠানিক এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে কথা বলেছেন অতিশি নিজেও।

সে ঘটনার পর থেকেই গম্ভীরকে ঘিরে দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছে পুরো ভারত। কেউ কেউ খুবই বাজেভাবে সমালোচনা করছেন গম্ভীরের, কেউ আবার অভিযোগটি উড়িয়ে দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন সাবেক এ ক্রিকেটারের। স্বভাবে খুবই স্বাধীনচেতা ও বাকপটু গম্ভীর শুরুতেই এ অভিযোগ অস্বীকার করেন এবং আম আদমি পার্টিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন প্রমাণ দেখানোর জন্য।

এছাড়াও স্থানীয় প্রধানমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, মনিশ সিসোদিয়া এবং অতিশির কাছেও আনুষ্ঠানিক বার্তা পাঠিয়েছেন গম্ভীর, যেনো উদ্ভূত এ ঘটনায় তার কাছে জনসম্মুখে ক্ষমা চাওয়া হয়। নিজের সে বার্তায় গম্ভীর আহ্বান করেছেন তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সরিয়ে নিয়ে নিঃশর্ত ক্ষমাপ্রকাশে। এ বার্তা পাঠানোর আগে গম্ভীর এও ওয়াদা করেছেন যে যদি তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সত্য প্রমাণ করতে পারে, তবে তিনি নির্বাচন ছেড়ে চলে যাবেন।

আর এখন এ লড়াইটিকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন গম্ভীর। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ঘোষণা দিয়েছেন যদি তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য প্রমাণ করতে পারে, তবে তিনি জনসম্মুখে ফাঁসিতে ঝুলতে রাজি আছেন। অন্যথায় অভিযোগ আনা অরভিন্দকে রাজনীতি ছেড়ে পালাতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ