বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

পা হারালেন ২০ জনের প্রাণ বাঁচানো সেই কনস্টেবল

পা হারালেন ২০ জনের প্রাণ বাঁচানো সেই কনস্টেবল

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দিতে বাস ডোবায় পড়ে মৃত্যু পথযাত্রী ২০ যাত্রীকে উদ্ধারে জীবনবাজি রাখা পুলিশের সেই কনস্টেবলকেই পা হারাতে হয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত পারভেজের ডান পা হাঁটুর নিচ থেকে কেটে ফেলতে হয়েছে।

দাউদকান্দিতে ২০ যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করে পারভেজ মিয়া পুলিশের সর্বোচ্চ পদক বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) পেয়েছিলেন। এ ছাড়া আইজিপির পক্ষ থেকে তাকে নগদ টাকা ও মোটরসাইকেল দেয়া হয়েছিল।

সেই পারভেজ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন। সোমবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়ার জামালদী বাসস্ট্যান্ডের সামনে তাকে ধাক্কা দেয় একটি বেপরোয়া কাভার্ডভ্যান। এতে তার ডান পায়ের গোড়ালি ও হাত মারাত্মক জখম হয়।

পারভেজের ছোট ভাই মহিউদ্দিন মিয়া জানান, তার ভাইয়ের ডান পা একেবারে থেঁতলে গিয়েছিল। বাঁ হাতের হাড়ও ভেঙে গেছে। ঢাকার জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে (পঙ্গু হাসপাতাল) সাত ব্যাগ রক্ত দেয়া হলেও উন্নতি হচ্ছিল না। একপর্যায়ে চিকিৎসকরা পারভেজের প্রাণ বাঁচাতে ডান পা কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন। মঙ্গলবার দিনভর অপারেশন করে বিকালে তার থেঁতলানো পা বিচ্ছিন্ন করেন চিকিৎসকরা। অপারেশন থিয়েটার থেকে বের করে সন্ধ্যায় তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেয়া হয়।

মহিউদ্দিন জানান, তার ভাই শুধু দাউদকান্দিতে বাসযাত্রীদেরই উদ্ধার করেননি, মানুষের বিপদে তিনি সব সময়েই ঝাঁপিয়ে পড়েন। মহাসড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে পরিশ্রম করেন। কিন্তু সেই মহাসড়কেই বেপরোয়া গাড়ির চাকায় তাকে নিজের পা হারাতে হলো।

দুর্ঘটনা সম্পর্কে জানা গেছে, পারভেজ সোমবার জামালদীতে হাইওয়ে পুলিশের সিসিটিভি নিয়ন্ত্রণ সেন্টারের পাশেই ডিউটি করছিলেন। ইফতারের কিছুক্ষণ আগে বেপরোয়া গতির একটি কাভার্ডভ্যান তাকে ধাক্কা দেয়। তিনি ছিটকে পড়লে ভ্যানের চাকা তার ডান পায়ের ওপর দিয়ে উঠিয়ে দেয়া হয়। এর পর ভ্যানটি পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে গজারিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়। সেখান থেকে ঢাকার রাজারবাগের কেন্দ্রীয় পুলিশলাইনস হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে তারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠায়।

ঢামেক হাসপাতাল থেকে তাকে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই ভর্তি। পঙ্গু হাসপাতালে তার পায়ে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে।

পঙ্গু হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, পারভেজকে বর্তমানে হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে। সেখানে তার চিকিৎসার পাশাপাশি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৭ জুলাই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লার দাউদকান্দির গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় চাঁদপুরগামী একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডোবায় পড়ে যায়। যাত্রীদের রক্ষায় জীবনবাজি রেখে ডোবায় ঝাঁপিয়ে পড়েন তৎকালীন দাউদকান্দি হাইওয়ে থানায় কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল পারভেজ মিয়া। ইউনিফর্ম পরেই পানিতে নেমে পড়েন তিনি। ২০ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ