বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:৫০ অপরাহ্ন

বালাগঞ্জে মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদ অব্যাহত

বালাগঞ্জে মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদ অব্যাহত

নিউজটি শেয়ার করুন

ওসমানীনগর প্রতিনিধি :: বালাগঞ্জে এক মাদরাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় এলাকাবাসীর অব্যাহত প্রতিবাদ কর্মসূচিতে উত্তাল হয়ে ওঠেছে পুরো এলাকা। ঘটনার প্রতিবাদে ও জড়িতদের শাস্তির দাবিতে এক সপ্তাহ ধরে প্রতিবাদ সমাবেশ, বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়ে আসছে।

এরই ধারবাহিকতায় উপজেলার ছমিরুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয় ও ছমিরুন নেছা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের যৌথ উদ্যোগে বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তৃতা করেন ছমিরুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জামাল আহমদ, সহকারী প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান, আব্দুল কুদ্দুছ, শিক্ষক মাহমুদুন নেছা, সুমন চন্দ্র সরকার, শুভ লস্কর, আব্দুল খালিক, শিহাব মো. তোফায়েল, সালেহ আহমদ, আব্দুল্লাহ আল মুঈন, ছমিরুন নেছা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহমুদ আহমদ, সহকারী প্রধান শিক্ষক তোফায়েল আহমদ, নূরুন নাহার বেগম, রুলি রাণী নাথ, ইমা বেগম, দিপা বেগম প্রমুখ।

এর আগে গত বুধবার বিকেলে দেওয়ানবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মোরারবাজারে প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দুদু মিয়া। ছাত্রলীগ নেতা সামছুল হক লেছুর পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী, সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জুয়েল, শিক্ষানুরাগী তজমুল আলী মূহুরী, আতিকুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা মজমিল আলী, মুজিবুর রহমান গেদা মিয়া, যুবলীগ নেতা এমরানুর রহমান ইমরান, শিরমান উদ্দিন খলকু মিয়া, খন্দকার আব্দুর রকিব, সুহেল আহমদ, সাহেদ আলী গেদা, রুবেল আহমদ মিশু, ইসলাম উদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, শিক্ষানুরাগী দৌলত মিয়া এবিন, ছাত্রলীগ নেতা খালেদ আহমদ, ছালেহ আহমদ ও মোসাদ্দেক আলী প্রমুখ।

পৃথক কর্মসুচিতে বক্তারা বলেন, ‘ন্যাক্কারজনক এই ঘটনার সাথে জড়িত সকল অপরাধীকে দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।’

ভিকটিমের পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন, ‘ঘটনার সাথে জড়িত আসামীদের স্বজনরা রাজনৈতিক প্রভাব দেখিয়ে এলাকায় বিভিন্ন উস্ককানিমূলক কথা বলে বেড়াচ্ছে। অপরাধীদের রক্ষা করতে একটি মহল গোপনে কাজ করছে। তাই দুই জন ধরা পড়লেও অন্যরা গ্রেফতার এড়িয়ে চলাফেরা করছে। আমরা তাদের সর্বোচ্ছ শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্য গাজী আতাউর রহমান বলেন, ‘উস্কানিমূলক আচরণ না করতে আসামীদের স্বজনদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গ্রেফতার হওয়া দুই আসামীর তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে, অন্যদের প্রেফতারের জোর চেষ্টা অব্যাহত আছে।’

গত ২২ নভেম্বর উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের শিওরখাল গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর মাদরাসা ছাত্রী নিজ বাড়িতে গণধর্ষণের শিকার হয়। সে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ