সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন

বিএনপির যেসব নেতার স্ত্রী-সন্তানরা মনোনয়ন পেলেন

বিএনপির যেসব নেতার স্ত্রী-সন্তানরা মনোনয়ন পেলেন

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত সিলেট : ২৮০ আসনে দলীয় প্রার্থীদের চূড়ান্ত মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। বেশিরভাগ আসনে বিকল্প প্রার্থী রেখেছে দলটি।

কোনো কোনো আসনে বিএনপি নেতাদের স্ত্রী-সন্তানদেরও মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভাতিজা কিংবা জামাতারাও মনোনয়ন পেয়েছেন।

বিশেষ করে বিএনপির প্রয়াত নেতাদের আসনে স্ত্রী-সন্তান কিংবা স্বজনদের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি যাদের নামে মামলা রয়েছে, তাদের স্বজনদেরও বিকল্প হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

স্ত্রী-সন্তান ও স্বজনদের মধ্যে যারা মনোনয়ন পেয়েছেন, তারা হলেন-

পঞ্চগড়-১ আসনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকারের ছেলে ব্যারিস্টার নওশাদ জমির, যশোর-১ আসনে প্রয়াত স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলামের ছেলে অনিন্দ ইসলাম অমিত।

মানিকগঞ্জ-২ আসনে প্রয়াত মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ারের ছেলে খোন্দকার আখতার হামিদ ডাবলু।

গাজীপুর-৩ আসনে স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রয়াত আ স ম হান্নান শাহর ছেলে শাহ রিয়াজুল হান্নান।

মানিকগঞ্জ-১ স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রয়াত শামসুল ইসলাম খানের ছেলে মাইনুল ইসলাম শান্ত।

মানিকগঞ্জ-৩ আসনে প্রয়াত হারুনার রশীদ খান মুন্নুর মেয়ে আফরোজা খান রীতা।

মৌলভীবাজার-৩ আসনে প্রয়াত অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের ছেলে এম নাসের রহমান মনোনয়ন পেয়েছেন।

নওগাঁ-৩ আসনে প্রয়াত ডেপুটি স্পিকার আখতার হামিদ সিদ্দিকীর ছেলে পারভেজ হামিদ সিদ্দিকী, জয়পুরহাট-১ আসনে প্রয়াত মোজাহের আলী প্রধানের ছেলে মাসুদ রানা অথবা প্রয়াত আবদুল আলীমের ছেলে ফয়সল আলীম মনোনয়ন পেয়েছেন।

চাঁদপুর-২ আসনে প্রয়াত নুরুল হুদার ছেলে তানভীর হুদা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনে প্রয়াত কাজী আনোয়ার হোসেনের ছেলে কাজী নাজমুল হোসেন তাপস, প্রয়াত ফজলুর রহমানের সহধর্মিণী অধ্যাপিকা কামরুন্নাহার শিরিন নাটোর-১ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন।

দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম মিয়ার স্ত্রী শাহিদা রফিক কুমিল্লা-৩ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন।

স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের স্ত্রী হাসনা মওদুদ মনোনয়ন পেয়েছেন নোয়াখালী-৫ আসন থেকে।

বিএনপির শীর্ষ নেতা মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাসও মনোনয়ন পেয়েছেন।

স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফের ছেলে খন্দকার মারুফ হোসেন মনোনয়ন পেয়েছেন কুমিল্লার একটি আসন থেকে।

কক্সবাজার-১ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সালাহউদ্দীন আহমদের স্ত্রী হাসিনা আহমদ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের পুত্রবধূ নিপুণ রায় লড়বেন ঢাকা-৩ আসনে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিকল্প প্রার্থী হিসেবে তিনি দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান গাজীপুরের সাবেক মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানের ছেলে মঞ্জুরুল করিম রনি পেয়েছেন গাজীপুর-২ আসন থেকে মনোনয়ন।

অন্যদিকে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন মনোনয়ন পেয়েছেন ঢাকা-৬ আসনে।

এ ছাড়া দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফ হোসেন চৌধুরীর স্ত্রী সুরাইয়া আখতার এবং ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর স্ত্রী রোমানা মাহমুদ।

ঢাকা-২ আসনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমানের ছেলে ইরফান ইবনে আমান দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন।

পটুয়াখালী-২ আসনে শহীদুল আলম তালুকদারের স্ত্রী সালমা আলম মনোনয়ন পেয়েছেন।

দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার তালিকায় আছেন রুহুল কুদ্দুস তালুকদারের স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিনও।

বিএনপির সাবেক সাংসদ এসএ খালেকের ছেলে এসএ সিদ্দিক ঢাকা-১৪ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন।

সিলেট-২ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদির লুনা।

বিএনপি প্রায় সব আসনেই একাধিক প্রার্থীকে মনোনয়ন দিয়েছে। প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে ৯ ডিসেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনের আগেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ