বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০১:২৮ অপরাহ্ন

বিশ্বনাথে প্রবাসীর টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বিএনপি নেতা আবারক গ্রেফতার

বিশ্বনাথে প্রবাসীর টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বিএনপি নেতা আবারক গ্রেফতার

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক:: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের সিঙ্গেরকাছ বাজারে সরকারি খাস জায়গা দখল করে অবৈধভাবে নির্মিত দোকান কোঠা বিক্রির প্রলোভন দেখিয়ে যুক্তরাজ্য প্রবাসীর ১ কোটি ১২ লাখ ৪৩ হাজার ৫শত টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সিঙ্গেরকাছ পশ্চিমগাঁও গ্রামের মৃত খোয়াজ আলীর পুত্র প্রবাসী আহমদ আলী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১৩ (তাং ২০.০৪.১৯ইং)।

ওই মামলায় উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি ও দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবারক আলীকে (৬৫) শনিবার গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

মামলার অন্যান্য অভিযুক্তরা হলেন- আবারক আলীর পুত্র সেবুল মিয়া (৩৮) ও মাসুক মিয়া (৩৬)। শনিবার সকালে আবারক আলীকে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আবারক আলীর বিরুদ্ধে পুলিশ এসল্টসহ আরোও ৮টি মামলা রয়েছে। যা বর্তমানে আদালতে বিচারধীন রয়েছে। এছাড়া ১৯৯৭ সালের এপ্রিল মাসে সাবিত্রী রাণী দাশ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত আবারক আলীসহ তার দুই পুত্রেরও (সেবুল-মাসুক) সাজা হয়ে ছিল।

বাদী প্রবাসী আহমদ আলী তার অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, অভিযুক্তরা তার নিকট আত্মীয় হওয়ায় হঠাৎ করে ব্যবসায় ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার পর আবারক আলী যাতে ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারেন সেজন্য নগদ ও ব্যাংক মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে আবারক আলী গংদেরকে কয়েক লাখ টাকা ঋন (ধার) প্রদান করেন প্রবাসী আহমদ আলী। আস্তে আস্তে সেই ঋনের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়াতে এক পর্যায়ে আবারক আলী সেই ঋনের টাকা ফেরত দিতে অক্ষম হওয়াতে সিঙ্গেরকাছ বাজারস্থ তার (আবারক) মালিকাধীন ৬ কক্ষ বিশিস্ট দোকান প্রবাসী আহমদ আলীর কাছে বিক্রি করার প্রস্তাব করেন। নিকট আত্মীয়ের কাছ থেকে এমন প্রস্তাব পেয়ে সরল বিশ্বাসে আলোচনা সাপেক্ষে প্রতিটি দোকানের মূল্য ১৫ লাখ টাকা করে মোট ৯০ লাখ টাকা নির্ধারণ করে বিভিন্ন সময় ও তারিখে আবারক আলীকে দোকান কোঠাগুলো ক্রয়ের সেই টাকা নগদ এবং ব্যাংকের মাধ্যমে প্রদান করেন বাদী। এরপর ২০১৮ সালের ২০ জানুয়ারী বাদী দেশে আসার পর ২৭ জানুয়ারী আবারক আলীর বাড়িতে গিয়ে তাকে (আবারক) দোকান কোঠার জমি রেজিস্ট্রারী করে দেওয়ার কথা বলেন। আবারক আলী সেই জমি রেজিস্ট্রারী না করে নিজের ইচ্ছা মতো সময় ক্ষেপন করতে থাকেন। এর ফাঁকে বাদী জানতে পারেন যে সরকারি খাস জমিতে দোকান কোঠাগুলো নির্মাণ করা হয়েছে। তাই তা কোনভাবেই তা রেজিস্ট্রারী করা যাবে না। মামলার ২ ও ৪ নং স্বাক্ষীদের সাথে নিয়ে ২০১৮ সালের ৫মে আবারক আলীর বাড়িতে গিয়ে বাদী আহমদ আলী উপরোক্ত বিষয়ে জানতে চান। এসময় বাদী তার টাকা ফেরত চাইলে বাদীর সাথে বিএনপি নেতা আবারক আলীর বাকবিতন্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে আবারক আলী টাকা ফেরত দিতে অস্বীকার করে বাদী প্রবাসী আহমদ আলীকে প্রানে মারার হুমকি দিয়ে তার (আবারক) বাড়ি থেকে তাদেরকে (বাদী-স্বাক্ষী) বের করে দেন।

বিশ্বাস ভঙ্গ করে আবারক আলী দোকান বিক্রয়ের কৌশল অবলম্বন করে প্রতারণামূলকভাবে বাদী প্রবাসী আহমদ আলীর ১ কোটি ১২ লাখ ৪৩ হাজার ৫শত টাকা আত্মসাৎ করার সুষ্ঠ বিচার পাওয়ার আশায় দেশে এসে বাদী মামলা করেছেন বলে স্থানীয় সাংবাদিকদেরকে জানিয়েছেন।

প্রবাসীর কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ থানায় দায়ের করার প্রবাসী আহমদ আলীর মামলায় আবারক আলীকে গ্রেপ্তার করার সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ দুলাল আকন্দ বলেন, তার বিরুদ্ধে (আবারক) আরোও একাধিক মামলা রয়েছে। যার অনেকগুলো মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ