শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

ভাড়া করা নেতৃত্বে চলছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

ভাড়া করা নেতৃত্বে চলছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ,

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক:বিএনপি এখন ভাড়া করা নেতৃত্বে চলছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সোমবার (২০ মে) দুপুরে সটিবালয়ে নিজ দফতরে সংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

কর্নেল অলি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলের দায়িত্ব নিতে চান- গণমাধ্যমে প্রকাশিত এমন সংবাদের বিষয়ে তিনি বলেন, বিএনপি আগেও ধার করা নেতা দিয়ে চলেছে। ঐক্যফ্রন্ট গঠন করে প্রকৃতপক্ষে বিএনপি জোটের নেতৃত্ব ড. কামাল হোসেন সাহেবদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। সেটি এখনও বহাল আছে। বিএনপি এখন নতুন করে আবার নেতৃত্ব ভাড়া করবে কিনা সেটি বিএনপিকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এ সিদ্ধান্ত অন্য কেউ দিতে পারবে না।

প্রকৃতপক্ষে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের হাতে এখন বিএনপির নেতৃত্ব নেই। তারেক রহমান যাবজ্জীবন শাস্তিপ্রাপ্ত পলাতক আসামি। দেশের বাইরে থেকে দলকে নেতৃত্ব দেওয়া সহজ নয়। সেই কারণে বিএনপির বহু সিদ্ধান্ত বাস্তব সম্মত ছিল না, মন্তব্য হাছান মাহমুদের।

তিনি বলেন, বিএনপির বিভিন্ন ভুল সিদ্ধান্তের কারণে তারা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। বিএনপির আজকের এ দৈন্যদশা তাদের ক্রমাগত ভুল সিদ্ধান্তেরই ফল। প্রথমত, তারা গত নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে সিদ্ধান্তহীনতায় ছিল। তারা নির্বাচনে অংশ নিয়েও নেয়নি। নির্বাচনে অংশ নেওয়ার পর যেভাবে তৎপর থাকার কথা ছিল, তাদের কোনো প্রার্থীর তেমন তৎপরতা ছিল না। এছাড়া মনোনয়ন বাণিজ্য তো ছিলই। তবে, মনোনয়ন বাণিজ্য এখানে নয় লন্ডনে হয়েছে। এখানে যেগুলো হয়েছে, সেগুলোও লন্ডন পর্যন্ত গেছে।

বিএনপি রাজনৈতিক দৈন্যদশায় পৌঁছেছে বলেই অন্য দলের নেতারা তাদের জন্য ভাড়ায় যেতে ইচ্ছা প্রকাশ করার সাহস পাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

খালেদার মুখে ‘ঘা’ হওয়ার ব্যাপারে বিএনপি নেতাদের বক্তব্য প্রসঙ্গে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি নেতারা বলছেন, হঠাৎ কামড় লেগে খালেদা জিয়ার জিহ্বায় ঘা হয়ে স্বাভাবিক খাবার খেতে পারছেন না। আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা বলেছেন, খালেদার জিহ্বায় ঘা হয়েছে। সে কারণে তিনি স্বাভাবিক খাবার খেতে পারছিলেন না, তবে এখন অনেকটা ভালো হয়ে গেছে। দুই-একদিনের মধ্যে তিনি সুস্থ হয়ে যাবেন এবং স্বাভাবিক খাবার খেতে পারবেন। অসতর্কতাবসত খালেদার জিহ্বায় কামড় লেগেছে। এটা অনেকেরই হয়। জিহ্বা কামড় লেগে ঘা হয়। কিন্তু এটি এমন কোনো রোগ নয় যে একেবারে জীবন শঙ্কা, যেভাবে বিএনপি নেতারা বলছেন। কামড় লেগে ঘা হয়েছে, বেঁচে থাকার জন্য জাউ (নরম ভাত বা খিচুরি) খাচ্ছেন- এভাবে উপস্থাপন করা অপরাজনীতি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, খালেদা আদালত কর্তৃক শাস্তিপ্রাপ্ত আসামি। বছরের পর বছর ধরে তার আইজীবীরা আদালতকে বার বার তারিখ পরিবর্তন করে হয়রানি করেছেন। মামলার ক্ষেত্রে এত সময় নেওয়ার ঘটনা এর আগে ঘটেনি। স্বাভাবিক বিচার প্রক্রিয়ায় তার বিচার হয়েছে। বিচারের মাধ্যমে তার শাস্তি হয়েছে। আইনকে প্রভাবিত করার সুযোগ নেই। এগুলো রাজনৈতিক বক্তব্য।

রূপপুরে অনিয়মের অভিযোগের ঘটনাটি তদন্ত করতে কমিটি করা হয়েছে, তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পেলে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ