বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:০৫ অপরাহ্ন

মন্ত্রীর প্রটোকলে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা

মন্ত্রীর প্রটোকলে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক:রাজধানীর সায়েন্স ল্যাবরেটরি এলাকায় শনিবার রাতে স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর প্রটোকল পুলিশের ওপর ককটেল হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে রোববার ভোরে বিস্ফোরকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলাটি করেন পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) জহিরুল ইসলাম। তিনি সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড় পুলিশ বক্সের ইনচার্জ।

মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে নিউমার্কেট থানার ওসি আতিকুল ইসলাম বলেন, পুলিশের ওপর ককটেল ছুড়ে মারায় মামলাটি করা হয়েছে। এ ঘটনার তদন্ত চলছে।

এদিকে পুলিশের পাশাপাশি ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ক্রাইম সিন এবং সিটিটিসি ইউনিট। মামলার তদন্তের সর্বশেষ অবস্থা নিয়ে আজ দুপুরে সাংবাদিকদের ব্রিফ করবেন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

শনিবার রাতে স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর প্রটোকল পুলিশের ওপর ককটেল হামলা হয়েছে। এ হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস। হামলায় দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তারা হলেন- এলজিআরডিমন্ত্রী তাজুল ইসলামের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এএসআই সাহাবুদ্দিন (৩৫) ও ট্রাফিক কনস্টেবল আমিনুল (৪০)। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দীর্ঘ সময় সায়েন্সল্যাব মোড় ও এর আশপাশের এলাকায় ব্যারিকেড দিয়ে রাখে পুলিশ। এ সময় ওই এলাকায় যান চলাচল বন্ধ থাকে। সায়েন্সল্যাব পুলিশ বক্সের পাশে রাত সাড়ে ৯টার দিকে সংঘটিত এ ঘটনার পর পুলিশের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান। রাত ১২টার দিকে পুলিশের আইজি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া আহতদের দেখতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান।

এ সময় আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, কে বা কারা এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ বিষয়ে পুলিশ প্রশাসন তৎপর আছে। জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

নিউমাকের্ট থানার পেট্রোল ইন্সপেক্টর গিয়াস উদ্দিন ফরাজী জানান, মন্ত্রীর গাড়িবহরের সামনের গাড়িতে ছিলেন শাহাবুদ্দিন। সায়েন্সল্যাব মোড়ে দীর্ঘ সিগন্যাল পড়েছিল। মন্ত্রীর যাওয়ার রাস্তা ক্লিয়ার করার জন্য গাড়ি থেকে তিনি নেমে সামনে যান এবং ট্রাফিক সদস্যদের অনুরোধ জানান। পাশাপাশি এ কাজে তিনি নিজেও সহযোগিতা করেন। সিগন্যাল ছাড়ার পর তিনি রাস্তার পাশে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় তার পায়ের ওপর ককটেল নিক্ষেপ করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ