বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ১১:৫৬ অপরাহ্ন

মেডিকেল বোর্ডে ব্যক্তিগত চিকিৎসক অন্তর্ভুক্তির দাবি বিএনপির

মেডিকেল বোর্ডে ব্যক্তিগত চিকিৎসক অন্তর্ভুক্তির দাবি বিএনপির

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক :: কারাবন্দি অসুস্থ খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় সরকার গঠিত মেডিকেল বোর্ডে তার ব্যাক্তিগত চিকিৎসকদের অন্তভুক্তির দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, কারাকর্তৃপক্ষের মৌখিক বার্তা অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত ৫ জন চিকিৎসকের নাম দলের পক্ষ থেকে প্রেরণ করা হয়েছিল। কিন্তু খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে রাখা হয়নি, যা বিদ্বেষপ্রসূত মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ। এতে বিএনপি শুধু উদ্বিগ্নই নয়, বরং দেশনেত্রীকে চিকিৎসা না দিয়ে তাকে গুরুতর শারীরিক ক্ষতির দিকে ঠেলে দেয়ার জন্য এটি সরকারের অশুভ পরিকল্পনারই অংশ।

রিজভী বলেন, যেসব চিকিৎসকের নাম বিএনপি সুপারিশ করেছিল তারা চিকিৎসা শাস্ত্রের স্ব স্ব ক্ষেত্রে প্রথিতযশা। একই সঙ্গে তারা চিকিৎসাঙ্গনের সিনিয়র অভিজ্ঞ চিকিৎসক, দেশজুড়ে তাদের খ্যাতিও রয়েছে। যারা খালেদা জিয়ার চিকিৎসক হিসেবে তাকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছেন। দীর্ঘদিন থেকে চিকিৎসা দেয়ায় তারা খালেদা জিয়ার যে শারীরিক অসুস্থতা সে সম্পর্কে অবগত রয়েছেন।

সরকার গঠিত মেডিকেল বোর্ডে ক্ষমতাসীন দলের চিকিৎসকদের অন্তর্ভুক্তি করা হয়েছে বলে দাবি করেন রিজভী।

তিনি বলেন, বোর্ডে অন্যতম সদস্য ডা. আবু জাফর চৌধুরী নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ- ৪ আসনের এমপি প্রার্থী, তিনি দলীয় প্রার্থী হিসেবে সংশ্লিষ্ট এলাকায় ব্যাপক নির্বাচনী প্রচারনা চালাচ্ছেন। অপর সদস্য ডা. হারিসুল হক আওয়ামী লীগের সমর্থিত চিকিৎসক সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের বিএসএমএমইউ এর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, এছাড়া অধ্যাপক তারেক রেজা আলী আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য। সুতরাং সরকারের গঠিত বোর্ডে মনোনীত চিকিৎসকগণকে বাছাইয়ের ক্ষেত্রে পেশাগত দক্ষতার চেয়ে সরকার দলীয় আনুগতের ক্ষেত্রকেই অধিক গুরুত্ব প্রদান করা হয়েছে।

রিজভী বলেন, আমরা মনে করি, আওয়ামী লীগের প্রতি অনুগত চিকিৎসকগনের অন্তর্ভুক্তকৃত মেডিকেল বোর্ডের মেডিকেল বোর্ডের মাধ্যমে যথাযথ চিকিৎসা ও তার শারীরিক পর্যবেক্ষন সঠিকভাবে প্রতিফলিত হবে না।

সরকার কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বোর্ড সরকারের নির্দেশ মতোই কাজ করবে দাবি রিজভী বলেন, এর আগেও খালেদা জিয়াকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়েছিল। তখন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের ডাকা হলেও স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময় তাদের রাখা হয়নি। এমনকি খালেদা জিয়ার সঙ্গেও তাদের দেখা করতে পর্যন্ত দেওয়া হয়নি।

তিনি বলেন, গুরুতর অসুস্থ দেশনেত্রীকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য বিএনপি’র উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছিলেন। তখন দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের অন্তর্ভুক্ত করে মেডিকেল বোর্ডের মাধ্যমে তার সুচিকিৎসা এবং বিশেষায়িত ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছিলেন। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিএনপি প্রতিনিধি দলকে আশ্বাস দিয়েছিলেন খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদেরকে মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার।

রিজভী বলেন, কিন্ত কার্যত: সেটির প্রতিফলন ঘটেনি। কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আমলে না নেয়ায় এটাই প্রমান হয় যে, সরকার বেগম জিয়াকে সুচিকিৎসা না দিয়ে তিলে তিলে নি:শেষ করতে চায়। এটি সরকারের অশুভ পরিকল্পনারই ইঙ্গিতবাহী। আমি আবারও দলের পক্ষ থেকে বলতে চাই-দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। কর্তৃপক্ষের অবহেলায় যদি খালেদা খালেদা জিয়ার কোন ক্ষতি হয়, সেজন্য এর সম্পূর্ণ দায় বর্তাবে সরকারের ওপর। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন-বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ফরহাদ হালিম ডোনার, নির্বাহী কমিটির সদস্য অর্পনা রায় প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ