বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন

মোস্তাফিজের মুম্বাইকে একাই হারালেন ব্রাভো

মোস্তাফিজের মুম্বাইকে একাই হারালেন ব্রাভো

নিউজটি শেয়ার করুন

স্পোর্টস ডেস্ক : মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের নিশ্চিত জয়ের ম্যাচটি ছিনিয়ে নিয়ে গেলেন ডুয়াইন ব্রাভো। এই ক্যারিবীয়ান অলরাউন্ডারের ‘খুনে’ ব্যাটিংয়ে নিশ্চিত জয়ের ম্যাচে পরাজয় বরণ করতে হয় মোস্তাফিজদের। ৩০ বলে দৃষ্টিনন্দন ৭টি ছক্কা ও তিনটি চারের সহায়তায় ৬৮ রান করে দলকে জয় উপহার দেন ব্রাভো।

চেন্নাইয়ের জয়ের জন্য শেষ ১৮ বলে প্রয়োজন ছিল ৪৭ রান। এমন অবস্থায় অসাধারণ ব্যাটিং করেন ব্রাভো। ১৮তম ওভারে ম্যাকলেনাহানের এক ওভারে দুই ছয় এবং এক চারের সহযোগিতায় ২০ রান নিয়ে নেন ব্রাভে। মূলত এই ওভারেই হেরে যায় মুম্বাই।

জয়ের জন্য চেন্নাইয়ের শেষ ১২ বলে প্রয়োজন ছিল ২৭ রান। ১৯তম ওভারে জসপ্রীত বুমরার প্রথম ৫ বলে তিন ছক্কায় ২০ রান আদায় করে নেন ব্রাভো। জয়ের জন্য শেষ ৭ বলে চেন্নাইয়ের প্রয়োজন ছিল ৭ রান। ওভারের শেষ বলে ব্রাভোকে ক্যাচ তুলতে বাধ্য করেন বুমরাহ।

শেষ ওভারে চেন্নাইয়ের প্রয়োজন ছিল ৭ রান। এমন কঠিন পরিস্থিতিতেও সাহসী বোলিং করেছেন মোস্তাফিজ। প্রথম তিন বল ডট দেন কাটার মাস্টার। কিন্তু পরের বল আর নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারায় দুই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ম্যাচ নিজেদের করে নেয় চেন্নাই।

ব্রাভের খুনে ব্যাটিংয়ে ১ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে চেন্নাই সুপার কিংস।

মুম্বাইয়ের পরাজয়ের ম্যাচে ৪ ওভার বোলিং করে ১ উইকেট নেয়ার পাশাপাশি একটি ক্যাচও নেন মোস্তাফিজ।

মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে আগে ব্যাটিং করে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান সংগ্রহ করে রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন মুম্বাই। টার্গেট তাড়া করতে নেমে ১ বল হাতে রেখে ১ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস।

টসে জিতে স্বাগতিকদের আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের শুরুটা প্রত্যাশিত হয়নি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের। রানের খাতা খোলার আগেই ফিরেছেন ওপেনার ইভিন লুইস। ১৫ রান করে শেন ওয়াটসনের বলে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন দলীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

২০ রানে দুই ওপেনারের উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়া দলকে খেলায় ফেরান সুরাইয়া কুমার যাদব ও ইশান কৃষান। তৃতীয় উইকেটে ৭৮ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের পথেই নিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। এরপর দ্রুত বিদায় নেন তারা।

শেন ওয়াটসনের বলে ছয় মারতে গিয়ে বাউন্ডারিতে হরভজন সিংহের হাতে ধরা পড়েন যাদব। সাজঘরে ফেরার আগে ২৯ বলে ৪৩ রান করে ফেরেন মহারাষ্ট্রের এই যুবক। তার বিদায়ের ১৫ রানের ব্যবধানে ফেরেন ২৯ বলে ৪০ রান করা কৃষান।

শেষ দিকে করুনাল পান্ডিয়ার ২২ বলের অপরাজিত ৪১ রানে ভর করে ১৬৫ রান তুলতে সক্ষম হয় মুম্বাই।

১৬৬ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে চেন্নাই। ৮৪ রানে টপঅর্ডার ৬ চ্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায় চেন্নাই। এমন অবস্থা থেকে দলকে উত্তরণের চেষ্টা করেন ডুয়াইন ব্রাভো। তার একার লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে চেন্নাই। ৩০ বলে ৭ চার ও তিন ছক্কায় ৬৮ রান করে দলকে জয় উপহার দেন ব্রাভো।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

মুম্বাই: ২০ ওভারে ১৬৫/৪ রান (যাদব ৪৩, করুনাল পান্ডিয়া ৪১* ইশান ৪০)।

চেন্নাই: ১৯.৫ ওভারে ১৬৭/৯ (ব্রাভো ৩০ বলে ৬৮, রাইডু ২২; মার্কডি ৩/২৩, পান্ডিয়া ৩/২৪, মোস্তাফিজ ১৩/৯)।

ফল: চেন্নাই সুপার কিংস ১ উইকেটে জয়ী।

ম্যাচ সেরা: ব্রাভো (চেন্নাই সুপার কিংস)।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ