শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

“যেভাবে ইবাদত-বন্দেগিতে স্বাদ ও সুফল পাবে মুমিন”

“যেভাবে ইবাদত-বন্দেগিতে স্বাদ ও সুফল পাবে মুমিন”

নিউজটি শেয়ার করুন

ধর্ম ডেস্ক:যে ইবাদতে স্বাদ বা আনন্দ নেই, সে ইবাদতে আগ্রহ পায় না মুমিন। এ কারণে ইবাদত-বন্দেগিতে খুলুসিয়ত তথা একাগ্রতার বিকল্প নেই। আল্লাহ তাআলা বান্দাকে আমলে খুলুসিয়ত তথা একনিষ্ঠ আমল করার জন্যই সৃষ্টি করেছেন। আল্লাহ বলেন-
‘আমি মানুষ ও জ্বিনকে আমার ইবাদত ছাড়া অন্য কোনো কারণে সৃষ্টি করিনি।’

তাইতো মানুষের উচিত, যেভাবে ইবাদত করলে আমলে খুলুসিয়ত তথা ইবাদতে একনিষ্ঠতা তৈরি হয়, কলবের মরিচিকা দূর হয়, তাজকিয়া নফস তথা পরিশুদ্ধ আত্মা তৈরি হয়, ঈমান বহুগুণে বৃদ্ধি পায় এবং দ্রুত আল্লাহ তাআলা নৈকট্য অর্জন হয় সেভাবে ইবাদত করা।

ইবাদতে পরিপূর্ণ স্বাদ পেতে হলে-
> আল্লাহকে পরিপূর্ণভাবে ভালোবাসা। আল্লাহর ভালোবাসা লাভে বা যে কাজে আল্লাহর ভালবাসা পাওয়া যাবে সে কাজে প্রাধান্য দেয়া। আল্লাহ তাআলা বলেন-
‘(হে রাসুল!) আপনি বলে দিন, যদি তোমরা আল্লাহকে ভালোবাসতে চাও তবে আমার আনুগত্য কর। তবেই আল্লাহ তোমাদের ভালোবাসবেন এবং তোমাদের গোনাহ ক্ষমা করে দেবেন। আর ক্ষমাশীল ও দয়ালু।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ৩১)

> আল্লাহর কাছে পরিপূর্ণ বিনয়-নম্রতা ও আনুগত্য প্রকাশ করা। অর্থাৎ বান্দা আল্লাহ তাআলার আদেশ-নিষেধসমূহ পালনের মাধ্যমে বিনয় ও নম্রতা প্রকাশ করবে। আর তাতেই বান্দা তার প্রভূর পরিপূর্ণ ভালোবাসা ও সন্তুষ্টি অর্জনে সক্ষম হবে। তার ইবাদত-বন্দেগি করতেও স্বাদ পাবে। আল্লাহ বলেন-
‘তোমরা স্বীয় প্রতিপালককে ডাক, কাকুতি-মিনতি করে, অত্যন্ত সংগোপনে। তিনি সীমা লংঘনকারীদের ভালোবাসেন না। (সুরা আরাফ : আয়াত ৫৫)

সুতরাং ইবাদত-বন্দেগির পরিপূর্ণ স্বাদ লাভে করণীয়-
– ইবাদত-বন্দেগি করবে গোপনে।
– বিনয়াবনত চিত্তে ইবাদত-বন্দেগি করা।
– ইবাদতে রোনাজারি করা।
– ইবাদতে কান্না না আসলে কান্নার ভান করা।
– লোকে ইবাদতকারী হিসেবে সম্মান করবে এই নিয়্যত ইবাদত না করা।
– একনিষ্ঠভাবে আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য ইবাদত করা।
– যা সম্ভব নয় এমন দুআ করা যাবে না। যেমন- নবী হওয়ার দোয়া ইত্যাদি।
– নামাজি এমনভাবে নামাজ পড়বে, যাতে পাশে স্বয়নকারী স্ত্রীও টের না পায়।
– এমনভাবে কুরআন তেলাওয়াত করবে, যাতে অন্য কারও কাছে ক্বারী, হাফেজ কিংবা তেলাওয়াতকারী হিসেবে পরিচিতি প্রকাশ না পায়।

সর্বোপরি দুনিয়ার প্রতি কাজ হতে শুধুমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে। তাতে থাকবে না কোনো লোভ গর্ব ও অহংকার। আর অবশ্যই প্রতিটি কাজ হতে কুরআন-সুন্নাহ নির্দেশিত কাজ। তবেই পাওয়া যাবে ইবাদতের স্বাদ।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে একনিষ্ঠভাবে তার হুকুম পালন করার মাধ্যমে ইবাদত-বন্দেগিতে নিজেদের বিলীন করে দেয়ার তাওফিক দান করুন। দুনিয়া ও পরকালের কল্যাণ দান করুন। আমিন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ