বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন

যে কারণে ভেঙে গিয়েছিল সালমানের সব প্রেম

যে কারণে ভেঙে গিয়েছিল সালমানের সব প্রেম

নিউজটি শেয়ার করুন

বিনোদন ডেস্ক:সালমান খান, বলিউডের এলিজেবল ব্যাচেলর বলা হয় যাকে। বলিউডে যে কয়টি বিষয় সবসময় আলোচনায় থাকে তম্মধ্যে একটি হলো, সালমান খান এ বছর বিয়ে করছেন কী?

এ প্রশ্নকে সামনে রেখেই সালমানের পেরিয়ে গেল ৫৩টি বসন্ত।

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে কখনও সোমি আলি, কখনও ঐশ্বরিয়া রাই, কখনওবা ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে নাম জড়িয়েছে তার নাম।

তবু বলি সুলতান এখনও সিঙ্গেলই রয়ে গেলেন।

ঐশ্বরিয়া রাইয়ের সঙ্গে সালমানের প্রেম চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছিল তবে সেই প্রেমও ভেঙে চুড়মার হয়েছিল।

সালমানের প্রেমিকাদের তালিকায় যাদের নাম এসেছে তাদের অনেকে সালমানের মতোই ‘সিঙ্গেল’!

বেশ কিছুদিন ধরে ভারতীয় মিডিয়ায় আসছে সালমানের প্রথম প্রেমিকা শাহিন বানুর কথা।

১৯৯০ সালের দিকে কলেজ জীবনে শাহিনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা হয় সালমানের।

বলি সূত্রের খবর, বলিউড অভিনেত্রী সায়েষা সায়গাল, সালমান খানের প্রথম প্রেম শাহিনা বানুর কন্যা।

অভিনেতা সুমিত সায়গালের সঙ্গে টেকেনি শাহিনা বানুর সংসার। বর্তমানে শাহিন সিঙ্গেল।

কিন্তু সালমানের প্রথম প্রেম কেন পরিণতির দিকে গড়ায়নি?

দোষটা সালমান খানেরই। শাহিনের সঙ্গে প্রেমচলাকালীন ভারতীয় অভিনেত্রী সঙ্গীতা বিজলানির সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বেড়ে যায় সালমানের।

বিষয়টা শাহিন মেনে নিতে পারেননি। ভেঙে যায় সালমানের প্রথম প্রেম।

সালমানের দ্বিতীয় প্রেম সঙ্গীতা। বিয়েও ঠিক হয়ে যায় দুজনার। ১৯৯৪ সালের মে মাসে যখন বিয়ের বাদ্য শোনা যাচ্ছিল ঠিক তখনই সঙ্গীতাও ছেড়ে যায় সালমানকে।

এখানেও দোষ বলি ভাইজানেরই। আগেরবারের মতোই সঙ্গীতা বিজলানিকে রেখে অভিনেত্রী সোমি আলিকে মন দিয়ে বসেন সালমান।

এ কারণে সালমানকে ছেড়ে সঙ্গীতা বিয়ে করেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিনকে।

তবে ৭ বছর এক ছাদের নীচে থাকার পর আজহারউদ্দিনের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে সঙ্গীতার। বর্তমানে শাহিনার মতো তিনিও ‘সিঙ্গেল’।

সঙ্গীতার সঙ্গে সম্পর্কে থাকাকালীনই অভিনেত্রী সোমি আলির প্রেমে পড়েন সালমান।

সালমান ও সোমি আলি সম্পর্ক গড়িয়েছিল আট বছর পর্যন্ত। তবে সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি।

জানা গেছে, সালমানের একই চরিত্রগত কারণে সোমির সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়।

তার পর আর বিয়ে করেননি সোমি। আর কোনো প্রেমের সম্পর্কেও জড়াননি।

ভারতীয় এক সংবাদ মাধ্যমে সোমি বলেছিলেন, সালমানই আমার প্রথম ও শেষ প্রেম।

সোমিও এখন সিঙ্গেল।

১৯৯৭ সালে সালমান খানের রোমান্সে জড়িয়ে যান সাবেক বিশ্ব সুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই।

‘হাম দিল দে চুকে সানাম’ ছবির সেটে প্রেমের তাদের প্রেমের সূত্রপাত।

সেসময় বলিমহলের খবর ছিল, এবার সালমান খান হয়ত মালা বদল করবেন।

কিন্তু ঐশ্বরিয়াও সালমানের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটান।

শারীরিক ও মানসিক অত্যাচারের অভিযোগ এনে সালমানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে ইতি টানেন ঐশ্বরিয়া।

তবে সালমান খানের প্রেমিকাদের মধ্যে একমাত্র তিনিই বিয়ের পর স্বামী অভিষেক বচ্চন ও মেয়ে আরাধ্যাকে নিয়ে দিব্যি ভালো আছেন।

অনেক ললনার মন ভাঙলেও থেমে থাকেননি সালমান খান। ঐশ্বর্যা রাইয়ের পর হালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফকে সামনে নিয়ে আসেন সালমান।

গুঞ্জন রটে, এবার ক্যাটে মজেছেন তিনি। কিন্তু পরে দেখা যায় বলি অভিনেতা রনবীর কাপুরের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছেন ক্যাটরিনা।

যে কারণে সালমান ও ক্যাটরিনার সম্পর্ক বিষয়ে এখনও রহস্যে রয়েছেন সিনেপ্রেমীরা।

তবে রনবীরের সঙ্গেও প্রেম ভেঙে যায় ক্যাটরিনার। বর্তমানে সিঙ্গেল তিনি।

জানা গেছে, ক্যাট নয় বর্তমানে মডেল অভিনেত্রী লুলিয়া ভান্তুরের সঙ্গে সালমানের প্রেম চলছে।

সালমান এখনো বিবাহিত নন। তার প্রেম রসায়ন প্রবাহমান।

আর ঐশ্বরিয়া ছাড়া তার সাবেক প্রেমিকারাও বর্তমানে সিঙ্গেল।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ