শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন

রিজভীর নেতৃত্বে ১৮ জনের বিক্ষোভ মিছিল

রিজভীর নেতৃত্বে ১৮ জনের বিক্ষোভ মিছিল

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক : কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে জাতীয়তাবাদী মহিলা আইনজীবী (লিগ্যাল এইড) নেতাদের নিয়ে ঝটিকা বিক্ষোভ মিছিল করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে মিছিলটি নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের কাছে এসে শেষ হয়।

বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মিছিলে ১৮ জন মহিলা আইনজীবীর উপস্থিতির কথা উল্লেখ করে ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিবের নেতৃত্বে মিছিল শুরু হলে মিছিলে অংশগ্রহণকারী মহিলা আইনজীবীরা বিএনপি চেয়ারপারসন ও এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে সোচ্চার কণ্ঠে স্লোগান দিয়ে রাজপথ কাঁপিয়ে তোলেন।’

মিছিলে অংশগ্রগ্রহণ করেন- বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী, অ্যাডভোকেট শামীমা আক্তার শাম্মী, অ্যাডভোকেট তাহমিনা আক্তার হাশেমী, অ্যাডভোকেট সেতারা বেগম সেতু, অ্যাডভোকেট রাফিজা আলম লাকী, অ্যাডভোকেট নার্গিস পারভীন এলিজা, অ্যাডভোকেট নাসরিন বেগম, অ্যাডভোকেট নার্গিস পারভীন মুক্তি, অ্যাডভোকেট নাদিরা বেগম হ্যাপি, অ্যাডভোকেট আসমা খাতুন, অ্যাডভোকেট মোস্তারী আক্তার নুপুর, অ্যাডভোকেট জোহরা খাতুন জুঁই, অ্যাডভোকেট কাজী রওশন দীল আফরোজ, অ্যাডভোকেট ফারহানা আক্তার লুবনা, অ্যাডভোকেট শাহীন সুলতানা খুকী, অ্যাডভোকেট শামসুন্নাহার, অ্যাডভোকেট তামান্না খানম, অ্যাডভোকেট জেবুন্নেসা খানম, অ্যাডভোকেট হাবিবা কাদের মিলি প্রমুখ।

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন ও চারবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া প্রতিহিংসার বিচারে আজ কারাবন্দী হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের আগের রাতে ভোট চুরি নিয়ে কেউ যেন টু শব্দ করতে না পারে এবং বাধাহীনভাবে ক্ষমতা দখল করা যায় সেজন্যই সুপরিকল্পিতভাবে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ১০ মাস আগেই কারাবন্দী করা হয়েছে। যে মিথ্যা মামলায় অন্যরা জামিন পেয়েছেন সেই একই মামলায় বেগম জিয়াকে কারাগারে বন্দী করে রাখার উদ্দেশ্যই হলো আওয়ামী অবৈধ ক্ষমতা দীর্ঘমেয়াদে ভোগ করা।’

তিনি বলেন, ‘একজন নির্দোষ জনপ্রিয় নেত্রী যিনি গুরুতর অসুস্থ, তাকে সুচিকিৎসার সুযোগ থেকে বঞ্চিত করে কারাগারে আকে রেখে যে অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে, সেজন্য এই অবৈধ শাসকগোষ্ঠীকে জনগণের কাছে জবাবদিহি করতেই হবে। জনগণ বেগম জিয়াকে কারামুক্ত করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।’

রিজভী বলেন, ‘আমি আবারও অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে তাঁর পছন্দের হাসপাতালে সুচিকিৎসার সুযোগসহ নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানাচ্ছি।’

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ