শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ০১:৪৩ অপরাহ্ন

শোষিত-মেহনতি মানুষের জন্য আমার রাজনীতি : প্রধানমন্ত্রী

শোষিত-মেহনতি মানুষের জন্য আমার রাজনীতি : প্রধানমন্ত্রী

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক : বর্তমান সরকার শিল্পোন্নয়নের পাশাপাশি শ্রমিকের ভাগ্যোন্নয়নেও কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন- ‘আমি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা। জাতির জনক যেভাবে মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন, আমিও দেশের মানুষের জন্য কাজ করছি। আমার রাজনীতিই শ্রমিক শোষিত মেহনতি মানুষের জন্য।’

মহান মে দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথাগুলো বলেন।

বক্তব্যের শুরুতেই জাতির জনককে স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু পরিত্যক্ত সব কলকারখানা চালু করেছিলেন। তিনি মে দিবসের ছুটি ঘোষণা করেন। শোষিত, বঞ্চিত ও শ্রমিকের ভাগ্যোন্নয়নে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন তিনি।

বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথ অনুসরণ করে বর্তমান সরকারও কাজ করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিল্প প্রতিষ্ঠানে যেন শান্তি থাকে, শ্রমিকরা যেন উৎপাদনমুখী হয় এবং পোশাক খাতের যেন উন্নয়ন হয়, সেজন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। নারী শ্রমিকদের জন্য যত কিছু দরকার আমরা করেছি। বন্ধ থাকা শিল্প কারখানা পর্যায়ক্রমে চালু হবে। আমরা দেশের খেটে খাওয়া ও মেহনতি মানুষের জন্য কাজ করছি। তেলে মাথায় তেল দিতে আসিনি।

পোশাক খাতের দু’একটি দুর্ঘটনার জন্য দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের যেন আর এমন অবস্থায় পড়তে না হয়, সে লক্ষ্যে শ্রমিকের অধিকার নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে। এসময় মালিক-শ্রমিকদের পরস্পরের প্রতি আন্তরিক হওয়ারও পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

শ্রমিকদের নেতৃত্ব দেওয়ার নামে অনেকের বিদেশিদের কাছে নালিশ প্রসঙ্গে সরকারপ্রধান বলেন, কিছু হলেই বাইরে গিয়ে বদনাম করা যে দেশের ভাবমূর্তির জন্য কতোটা ক্ষতিকর, তারা তা বোঝেন না। শুধু নালিশই করেন। আমি একটা কথা বলে দিতে চাই, বাইরে কারও কাছে নালিশ করে কোনও সুবিধা হবে না।

এসময় বিদেশ গমনেচ্ছু শ্রমিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, কেউ যেন সোনার হরিণ ধরতে গিয়ে দালালের খপ্পরে পড়ে বিপদে না পড়েন, সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু, শ্রম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মুন্নুজান সুফিয়ানসহ বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী কয়েকজন শ্রমিক ও তাদের সন্তানদের হাতে অনুদানের চেক তুলে দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ