সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:৩৮ অপরাহ্ন

সরকার ও ইসির বিরুদ্ধে সংবিধান লঙ্ঘনের মামলা হবে : রব

সরকার ও ইসির বিরুদ্ধে সংবিধান লঙ্ঘনের মামলা হবে : রব

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক :জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ও জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব বলেছেন, সংবিধানের কোথাও ইভিএম ব্যবহারের কথা উল্লেখ নেই। অসৎ উদ্দেশে ইভিএম ব্যবহারের পাঁয়তারা চলছে।ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে ড. কামালের নেতৃত্বে ইসি ও সরকারের বিরুদ্ধে সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগে মামলা করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২২ নভেম্বর) রাজধানীর গুলশানে লেকশোর হোটেলে অনুষ্ঠিত ‘ইভিএমকে না বলুন আপনার ভোটকে সুরক্ষিত করুন’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে একাদশ সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কি ধরনের প্রভাব ফেলতে পারে তা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেওয়া হয়।

এসময় ইভিএমের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নানাভাবে ভোট জালিয়াতির কয়েকটি নমুনা দেখান বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল ও দলের তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ দল। তারা ইভিএমের নানা ত্রুটিবিচ্যুতি কথা উল্লেখ করে বলেন, ইভিএম পুরোপুরি নিরাপদ ও নির্ভরযোগ্য হিসেবে এখনও প্রমানিত হয়নি। আ স ম আব্দুর রব বলেন, সংবিধানের ৬৫ অনুচ্ছেদের ২(ক) তে বলা আছে, সংসদ গঠন হবে প্রত্যক্ষ ভোটে। সংবিধানে ইংরেজিতে স্পষ্টভাবে ‘ডিরেক্ট’ শব্দটি উল্লেখ করা আছে, যার অর্থ প্রত্যক্ষ। ইভিএম প্রত্যক্ষ ভোটের আওতায় পড়ে না। নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা সংবিধানবিরোধী। তাই সংবিধান সংশোধন ছাড়া ইভিএম ব্যবহার করা যাবে না।

তিনি বলেন, ভোট দেয়া থেকে শুরু করে গণনা পর্যন্ত সব নির্বাচনী প্রক্রিয়া জনগণের কাছে উন্মুক্ত থাকতে হবে। জনগণের কাছে এ মেশিনের স্বচ্ছতা নেই।

নির্বাচন কমিশন সেনাবাহিনীকে বিতর্কিত করতে ইভিএম কেন্দ্রগুলোতে নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব দিতে চাই জানিয়ে ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা বলেন, র‌্যাব, পুলিশ, সেনাবাহিনী, ডিবি, নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বলবো, আপনারা নিরপেক্ষ হোন। নির্বাচনের পর দেশে আপনারা থাকবেন, আমরাও থাকবো। আপনাদের ভূমিকার জন্য জনগণের কাছে জবাব দিতে হবে।

এবারের নির্বাচনে ভোট বিপ্লব ঘটবে বলে আশাবাদ জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, নির্বাচনে আমরা যাব, জাতি নির্বাচনে যাবে। সেই নির্বাচনকে অবশ্যই জনগণের রায়ে পরিণত করতে জনগণ সেই লড়াই সেই যুদ্ধে লড়বে, ভোটের যুদ্ধে লড়বে। সেখানে কোনো কিছুই তাদের আটকে রাখতে পারবে না।

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী বলেন, বর্তমান সরকার এবার ভোট কেন্দ্রে যেতে পারবে বলে আমার সন্দেহ আছে। ইভিএমের এই রকম প্রেজেন্টেশন আরও সব জায়গায় দেওয়া দরকার। এতে মানুষ আরও সাহসী হবে। মূলত আমাদের দরকার মানুষকে সাহসী করে তোলা।

নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ভোটের দিন ভোটের মাঠে ভোট দিতে যান। এবার শ্লোগানটা দিতে হবে নিরাপদ ভোট চাই, নিরাপদ ভোট কেন্দ্র চাই। আমরা একটা শঙ্কামুক্ত, প্রশ্নমুক্ত নির্বাচন চাই।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে ও বিজ্ঞান-প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলাম রিজুর পরিচালনায় সেমিনারে অন্যদের মধ্যে গণস্বাস্থ্য সংস্থার ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির আবদুল মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) মোস্তফা জামাল হায়দার বক্তব্য রাখেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ