বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:১০ পূর্বাহ্ন

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজে অবকাঠামো উন্নয়ন করা হবে: পরিকল্পনা মন্ত্রী

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজে অবকাঠামো উন্নয়ন করা হবে: পরিকল্পনা মন্ত্রী

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত সিলেট :বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মানান এমপি বলেছেন, শিক্ষক শিক্ষার্থীদের জীবনমান উন্নয়নে সরকার ব্যাপকভাবে কাজ করছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী পরিকল্পনায় শিক্ষা এবং শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মানউন্নয়নে বাস্তবে রূপ নিচ্ছে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষার উন্নয়নে খুবই আন্তরিক। আর একারণে শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে । শনিবার বিকেল ৩ টায় কলেজ অডিটোরিয়ামে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের সাহিত্য ও সংস্কৃতি প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ প্রফেসর হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জীর সভাপতিত্বে ও বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অনুপা নাহার ওয়ালেদা পরিচালনায় পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন,
নতুন প্রজন্মের মাঝে একুশের চেতনা জাগ্রত করার পাশাপাশি তাদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি সকল মহলকেই এগিয়ে আসতে হবে। ভাষা আন্দোলন, স্বাধীকার আন্দোলন ও বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ইতিহাস নতুন প্রজন্মকে ছড়িয়ে দেওয়া না গেলে তারা দেশপ্রেমে উজ্জীবীত হবেনা। নতুন প্রজন্মই যেহেতু আগামীতে এই দেশ পরিচালনায় নেতৃত্ব দেবে একারণে পরিবার থেকে শুরু করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনকেও দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে এগিয়ে আসার কোন বিকল্প নেই।
পরিকল্পনামন্ত্রী আরো বলেন, শিক্ষার উন্নয়নে বর্তমান সরকার আন্তরিক। শিক্ষাকে অগ্রাধিকার দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। আধুনিক ও যুগোপযোগী শিক্ষা ব্যবস্থা প্রণয়ন করায় বাংলাদেশ শিক্ষাক্ষেত্রে বিশ্বের রোল মডেলে পরিণত হচ্ছে। তিনি বলেন, বিশ্বের মাঝে মাতৃভাষা আমাদের কে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে । তিনি বলেন, সিলেট সকরারি মহিলা কলেজ নারী জাগরণে অগ্রণি ভুমিকা করবে।আধুনিক শিক্ষার প্রসারে মহিলা কলেজের অবকাঠামো উন্নয়ন করা হবে।
মন্ত্রী বলেন,আলোকিত জনগোষ্ঠী গড়তে বাংলাদেশে শিক্ষার গুণগত মান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত এক দশকে শিক্ষার সর্বস্তরের চোখে পড়ার মতো অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। শিক্ষার এই ব্যাপক অগ্রগতি ও সক্ষমতা অর্জন অর্থনীতির ভিত্তিকেও করেছে মজবুত ও টেকসই, দেশকে বিশ্বের বুকে দিয়েছে পৃথক পরিচিতি। সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ প্রফেসর হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জী কলেজের সমস্যা ও সম্ভাবনা তুলে ধরে বলেন, শিক্ষার্থীরা শিক্ষা সাংস্কৃতিক দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছে।
তিনি বলেন, কলেজের অবকাঠামো উন্নয়নে মাননীয় মন্ত্রীর কাছে সিলেটবাসীর প্রাণের দাবী । প্রফেসর হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা অগ্রণি ভূমিকা পালন করবে। শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল গবেষণা, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রায়োগিক শিক্ষার সম্প্রসারণ ও সুস্থ নৈতিক শিক্ষার মাধ্যমে সম্প্রীতি, শান্তি ও উন্নয়ন প্রতিষ্ঠা করতে চায় কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রফেসর প্রফেসর হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জী বলেন,পরিকল্পনা মন্ত্রী কলেজের বাস উপহারদেবার কথা মনে করিয়ে দিয়ে বলেন ডিজাটাল বাংলাদেশ বির্নিমানে ছাত্রীরা দেশের অংশীদার হতে চায়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক আনজুমান আরা বেগম। এছাড়া অনুষ্ঠানে অন্যন্যর মাঝে উপস্থিত ছিলেন। সিলেটের বিভাগীয় কমশিনার মেজবাহ উদ্দিন, জগন্নাথ পুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আকমল হোসেন,সিলেট প্রেসক্রাবের সভাপতি ইকরামুল কবির। অনুষ্ঠানের শুরুতে শিক্ষক শিক্ষার্থীরা প্রধান অতিথিকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান শেষে অতিথিবৃন্দ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ