মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫:৩২ অপরাহ্ন

সিলেট-৬ : কে হচ্ছেন মহাজোটের প্রার্থী?

সিলেট-৬ : কে হচ্ছেন মহাজোটের প্রার্থী?

নিউজটি শেয়ার করুন

নন্দিত ডেস্ক :সিলেটের ছয়টি আসনের মধ্যে পাঁচটিতেই চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে। তবে এখনো চূড়ান্ত হয়নি সিলেট-৬ (গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার) আসনে মহাজোটের প্রার্থীতা। এ আসনের নির্বাচনী মাঠে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য শমসের মবিন চৌধুরীকে নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। দুজনেই চষে বেড়াচ্ছেন ভোটের মাঠ। নিজেকে দাবি করছেন মহাজোটের একক প্রার্থী হিসেবে।

এই আসনের বর্তমান সাংসদ শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোয়ন দেয়া হয়েছে। দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত হবার পরই তিনি নেমে পড়েন দল গোছাতে। গত কয়েকদিন নিজ এলাকায় বেশ কয়েকটি কর্মীসভা করেন তিনি। তবে শুরুতেই দলীয় নেতাকর্মীদের তোপের মুখে পড়তে হয় তাকে। গত দশ বছরে নেতাকর্মীদের সাথে তৈরি হওয়া দূরত্ব মেটাতে বেশ কয়েকটি ঘরোয়া সভা করেন তিনি। ঘরোয়া বৈঠক করে দলে কিছুটা শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সমর্থ হলেও নির্ভার নন তিনি। বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশ প্রকাশ্যেই বিরোধিতা করছে, তাদের সাথে যোগ হয়েছে গোলাপগঞ্জেরও অনেক নেতাও। তাই নিজের ঘরেই প্রতিপক্ষ সামলাতে হচ্ছে তাঁকে।

তবে এখন পর্যন্ত কিছুটা বিরোধিতা থাকলেও শেষ পর্যন্ত নৌকার পক্ষেই নেতাকর্মীরা অবস্থান নেবেন বলে ধারণা নুরুল ইসলাম নাহিদ বলয়ের নেতাকর্মীরা। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ জানান, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে ইতিমধ্যে জোটের প্রার্থী বলে আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো বাকি। আমরা আশা করছি বিগত দিনে গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজারে নুরুল ইসলাম নাহিদ যে উন্নয়ন করেছেন এই ধারা অব্যাহত রাখতে আবারো সকলে ভোট দিয়ে তাকেই নির্বাচত করবে। দলীয় কোন্দলের ব্যাপারে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বড় দল। অনেকের মধ্যে হয়তো কোন কারণ নিয়ে মনোমালিন্য থাকতে পারে, তবে এটা কোন্দল নয়। নৌকা মার্কাই আমাদের একমাত্র আশ্রয়, তাই নৌকা যার আমরাও তার।

অপরদিকে, সদ্য বিএনপির ত্যাগ করে বিকল্পধারায় যোগ দেওয়া সাবেক সচিব শমসের মবিন চৌধুরীও এ আসনে মহাজোটের মনোনয়ন দাবি করছেন। বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত থাকাকালীন তৃণমুল নেতাকর্মীদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা থাকলেও বিএনপি ত্যাগ করায় স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা তাঁর পাশে নেই। আর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও তাকে সহজে মেনে নিতে পারছেন না। তবে এসব নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছেন না সাবেক এই কুটনীতিক। মনোনয়ন বাছাইয়ের পর থেকেই ভোটের মাঠ গোছাতে নেমে গেছেন তিনি। নিজের নির্বাচনী এলাকায় কুশল বিনিময় ও উঠান বৈঠকের নামে গণসংযোগ চালাচ্ছেন তিনি।

বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, আমি আশা করছি সিলেট-৬ আসনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমাকে মহাজোটের প্রার্থী ঘোষণা করা হবে। তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করে বলেন, দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে উন্নয়নের প্রতিক নৌকাকে আবারো ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন।

তবে দুই প্রার্থীই মাঠে সক্রিয় থাকায়, নাহিদ না শমসের- এই বিতর্ক আরও জোরালোভাবে দেখা দিয়েছে ভোটারদের মধ্যে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের একাধিক সুত্র জানায়, গত দশবছরে বিভিন্ন কারণে দলের তৃণমুল নেতাকর্মীদের সাথে দূরত্ব তৈরি হয় শিক্ষামন্ত্রীর। দলের ভেতরে দেখা দেয় কোন্দল। এছাড়া উন্নয়ন নিয়েও ওই এলাকার ভোটারদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে। দলের বিভক্তির কারণে এবার সিলেট-৬ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছেন দলটির ১২ নেতা। এছাড়া প্রতিটি কর্মীসভায় শিক্ষামন্ত্রীকে নিয়ে সমালোচনায় মুখর ছিলেন নেতাকর্মীরা। তবে শেষ পর্যন্ত নুরুল ইসলাম নাহিদের দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ায় কিছুটা হলেও উদ্ভুত অস্থির পরিস্থিতির অবসান হয়েছে। জোটের মনোনয়ন ঘোষণা দেয়া হলে বাকিটাও ঠিক হয়ে যাবে বলে মনে করেন নেতাকর্মীরা।

তবে চুড়ান্ত ঘোষণা পাওয়া যাবে দু’একদিনের মাঝেই। সে পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকতে হবে দুপক্ষকেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ