বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জ সদরে পীর মিসবাহ, বাকি চারটিতেই নৌকা

সুনামগঞ্জ সদরে পীর মিসবাহ, বাকি চারটিতেই নৌকা

নিউজটি শেয়ার করুন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুনামগঞ্জ সদর আসনে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে লড়বেন জাতীয় পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। জেলার বাকি চার আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীও অপরিবর্তিত রয়েছে। গত পাঁচ বছরে সুনামগঞ্জ-৪ আসনের এমপি পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ নিজেকে ভোটযুদ্ধে অপ্রতিদ্বন্দ্বী প্রমাণ করায় ওই আসনে আর দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করেনি ক্ষমতাসীন দল। বাকি আসনগুলোতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী পরিবর্তনের ব্যাপক দাবি থাকলেও বিষয়টি আমলে নেয়নি হাইকমান্ড। রোববার প্রার্থীদের যে তালিকা ঘোষণা করা হয়েছে, তাতে সুনামগঞ্জের সব আসনেই বর্তমান সংসদ সদস্যরা বহাল রয়েছেন।

সুনামগগঞ্জ-১ আসনে টানা তৃতীয়বারের মতো আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন। তাঁর বিপরীতে এক ডজনেরও বেশি প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও ঝুঁকি নেয়নি আ’লীগ। শেষ পর্যন্ত মনোনয়ন দৌঁড়ে জয়ী হন রতনই।

সুনামগঞ্জ-২ আসনে দ্বিতীয়বারের মতো আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন প্রয়াত সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের স্ত্রী জয়া সেন গুপ্তা। দেড় বছর আগে উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছিলেন তিনি। জয়া সেন গুপ্তার বিপরীতে এই আসনে নতুন প্রার্থী আনতে একাট্টা ছিলেন ১০জনের মতো মনোনয়ন প্রত্যাশী।

সুনামগঞ্জ-৩ আসনে তৃতীয়বার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান। প্রয়াত জাতীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদের পুত্র আজিজুস সামাদ ডন আলোচনায় থাকলেও শেষ পর্যন্ত মান্নানই পেয়েছেন আওয়ামী লীগের টিকেট। ২০১৪ সালের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে সামান্য ভোটের ব্যবধানে মান্নানের কাছে হেরে ছিলেন ডন। জোর গুঞ্জন উঠেছিলো- দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিতে যাচ্ছেন ডন। যদিও এসব গুজব বলে উড়িয়ে দেন ডন। ফের মনোনয়নবঞ্চিত হয়ে শেষ মুহূর্তে তিনি কী করবেন- সেদিকে তাকিয়ে আছেন তার সমর্থকরা।

এদিকে, সুনামগঞ্জ-৪ আসনটি এবারও জাতীয় পার্টিকেই ছেড়ে দিচ্ছে আওয়ামী লীগ। ২০১৪ সালে এ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। জাপাকে হটিয়ে দলীয় টিকেট পেতে মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ চার মনোনয়ন প্রত্যাশী। কিন্তু শেষ মুহূর্তে জাপার জন্য আসনটি রেখে দিয়ে কোন প্রার্থী দেয়নি আওয়ামী লীগ। গত ১৬ সেপ্টেম্বর জুবিলি উচ্চবিদ্যালয় মাঠের সমাবেশে পীর মিসবাহকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ঘোষণা করেছিলেন দলের চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। ফলে এবারের নির্বাচনে এই আসনে তিনিই মহাজোটের প্রার্থী হচ্ছেন- এটি নিশ্চিত।

সুনামগঞ্জ-৫ আসনে চতুর্থবারের মতো নৌকার টিকেট পেয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক। তিনবারের এই এমপির বিপরীতে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা শামীম আহমদ চৌধুরী। শেষ পর্যন্ত নৌকার টিকেট উঠেছে মানিকের হাতেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ