বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন

সুনিশ্চিত জাহান্নাম থেকে নিজেদের হেফাজত করবেন যেভাবে

সুনিশ্চিত জাহান্নাম থেকে নিজেদের হেফাজত করবেন যেভাবে

নিউজটি শেয়ার করুন

ধর্ম ডেস্ক: সবচেয়ে তাকওয়া অবলম্বনকারী ব্যক্তিই আল্লাহর কাছে সবচেয়ে সম্মানিত। যারা আল্লাহকে ভয় করে তারা সব সময় আল্লাহর হুকুমগুলো যথাযথ পালন করে। আবার তার নিষেধ করা কাজগুলো থেকেও নিজেদের বিরত রাখে। আর এমনটি করার জন্য আল্লাহ তাআলা নির্দেশ প্রদান করেছেন। এ নির্দেশ পালনেই সুনিশ্চিত জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাবে মানুষ।

আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘তোমরা সৎকাজের আদেশ দাও এবং অসৎ কাজ থেকে বিরত থাক।’ সুতরাং যে ব্যক্তি অন্যকে সৎ কাজ করার আদেশ দেবে, তার জন্যও একই আদেশ জারি থাকে।

অন্য আয়াতে আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘রাসুল তোমাদের জন্য যা নিয়ে এসেছেন, তা ধর (গ্রহণ কর); এবং যা নিষেধ করেছেন তা থেকে বিরত থাক।’

সুতরাং কুরআনের বিধি-নিষেধগুলো পালন করা যেমন আবশ্যক তেমনি সুন্নাহর আদেশ-নিষেধগুলো পালন করাও আবশ্যক। আর তাতেই রয়েছে কল্যাণ।

কুরআন-সুন্নাহর বিপরীত কাজেই রয়েছে দুনিয়া ও পরকালের অকল্যাণ এবং ধ্বংস। তারা জান্নাতের নেয়ামত থেকেও হবে বঞ্চিত।

প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, এমন অনেক লোক আছে; যাদের কর্মের জন্য আল্লাহ তাআলা জান্নাতকে হারাম ঘোষণা করেছেন। ইচ্ছা করলেই তারা সে সব কাজ থেকে নিজেদেরকে বিরত রাখতে পারে। প্রিয়নবির ঘোষণায় ওঠে এসেছে সে কথা।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, তিন ব্যক্তির জন্য আল্লাহ তাআলা জান্নাতকে হারাম ঘোষণা করেছেন। (আর তারা হলো)-

মদ তৈরিকারী। অর্থাৎ যে ব্যক্তি মদ তৈরি ও মাদকের সরবরাহের সঙ্গে জড়িত তারাও এর অন্তর্ভূক্ত।

– পিতা-মাতার অবাধ্য সন্তান। অর্থাৎ যারা জীবিত পিতা-মাতার সঙ্গে নাফরমানি করে। সেবা-যত্ন করে না উপরন্তু তাদের মনে কষ্ট দেয়।

– দাইয়ুস। অথ্যাৎ ঐ চরিত্রহীন ব্যক্তি (দাইয়ুস) যে নিজ স্ত্রীকে (নিজের আধীনের নারীদের) অশ্লীলতা ও ব্যভিচার করতে সুযোগ দেয়। (মুসনাদে আহমাদ)

জাহান্নামের সুনিশ্চত ঘোষণা থেকে নিজেদের বিরত রাখতে কুরআন-সুন্নাহর জারিকৃত বিধি-নিষেধ যথাযথ পালন করা জরুরি।

বিশেষ করে
উল্লেখিত কাজ ও কাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করাও জরুরি। সম্ভব হলে উল্লেখিত কাজগুলোর সঙ্গে যারা জড়িত তাদেরকে এ কাজ থেকে ফিরিয়ে ভালো কাজের দিকে আহ্বানের সর্বাত্মক চেষ্টা করাও জরুরি। তবেই সম্ভব সুনিশ্চিত জাহান্নামের পথ থেকে মুক্ত হয়ে চিরস্থায়ী জান্নাত লাভ করা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে কুরআন-সুন্নাহ বিধি-নিষেধগুলো যথাযথ পালন করার তাওফিক দান করুন। প্রিয়নবির ঘোষণা অনুযায়ী উল্লেখিত ব্যক্তিদের খারাপ অভ্যাস ও কাজগুলো অনুসরণ ও অনুকরণ থেকে নিজেদের হেফাজত করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ